মেইন ম্যেনু

লালমনিরহাটে জাপা নেতা ও সাবেক এম পি মজিবরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক এম পি মজিবর রহমানের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়নের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগের অভিযোগে এনে মামলা হয়েছে। গত বুধবার জেলার স্পেশাল জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন আদিতমারী জি এস মডেল উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ পরিচালনা কমিটির অভিভাবক সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজফিজুর রহমান লিটন।

টানা ৭ বারের সাবেক এ এম পি মজিবর রহমানকে প্রধান করে মামলার অন্য আসামী করা হয়েছে, আদিতমারী জিএস মডেল উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষিকা শওকাত আরা সিদ্দিকা, জেলার তুষভান্ডার রমনী মোহন সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আব্দুল কাদের প্রধান, আদিতমারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মঞ্জুরুল হক, আবুল কাশেম, আদিতমারী কান্তেশ্বর বর্ম্মন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সহকারী অধ্যাপক পরেশ চন্দ্র, শাহিনুর রহমান, আদিতমারী উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বীরেন্দ্রনাথ রায়।

মামলা বিবরনে জানা গেছে, লালমনিরহাটের আদিতমারী জিএস মডেল উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের সভাপতি ও সাবেক এম পি মজিবর রহমান প্রধান শিক্ষক নিয়োগের জন্য ২০১২ সালের ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সময় পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন। কিন্তু তার আগেই ওই বছরের ২ অক্টোবর গোপনীয় ভাবে সভাপতির যোগসাজশে আসামীরা জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে শওকাত আরা সিদ্দিকাকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিয়ে বেতন ভাতার সরকারী অর্থ প্রদান করেন। পরবর্তিতে বিষয়টি জানাজানি হলে এ ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানের অভিভাবকরা লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত করে জাল-জালিয়াতির সত্যতা প্রমানিত হওয়ায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও শিক্ষা সচিব বরাবরে পত্র প্রেরন করেন জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান। যার স্মারক নং ০৫.৪৭.৫২০০.০০৫.০১.০৪৪.১৫ ; তাং ১২/০২/২০১৫ইং।

এরপর আসামীদের বিরুদ্ধে কোন রুপ ব্যবস্থা গ্রহন না করায় প্রতিষ্ঠানটির অভিভাবক সদস্য উপজেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান লিটন বাদি হয়ে সাবেক এ এম পি-সহ ৮ জনকে আসামী করে বুধবার লালমনিরহাট স্পেশাল জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন।

বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনে প্রেরন করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন লালমনিরহাট স্পেশাল জজ আদালতের পেস্কার কবির হোসেন।

 






মন্তব্য চালু নেই