মেইন ম্যেনু

‘স্বপ্নকলা’র শাখা উদ্বোধন ও বৈশাখী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা-’২৪ অনুষ্ঠিত

১লা বৈশাখ ১৪ এপ্রিল শুক্রবার কড়াইলের বেলতলা মায়ের ডাক ফাউন্ডেশণ মিশনারি স্কুলে ‘স্বপ্নকলা’র প্রথম শাখা উদ্বোধন ও বৈশাখী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা-১৪২৪ অনুষ্ঠিত হয়। অসহায় গরিব, দুস্থ ও পিছিয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের নিয়ে ‘স্বপ্নকলা সাংস্কৃতিক ভুবন’-এর আয়োজনে বৈশাখী উৎসব ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

এই আয়োজন ‘স্বপ্নকলা’র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক রিয়াজ মাহমুদ মিঠুর সভাপতিত্ত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আলমাস পারভীন, প্রেসিডেন্ট মায়ের ডাক ফাউন্ডেশণ। অনুষ্ঠানে শাখা উদ্বোধন করেন, ‘স্বপ্নকলা’র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক নোমান বিন সাদেক। আহ্বায়ক ছিলেন, ‘স্বপ্নকলা’র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ফারজানা আক্তার। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ‘স্বপ্নকলা’র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ফরিদ আহমাদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুরভী স্কুলের শিক্ষক মো: মনিরুজ্জামান ও ইমরান হোসেন।

এই এলাকার ২০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বৈশাখী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলমাস পাভীন বলেন, ‘রাজধানীতে যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আছে তার চেয়ে কড়াইলের শিক্ষার্থীরা সুযোগ সুবিধা থেকে পিছিয়ে আছে, এই পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্বপ্নকলা যে আয়োজন করেছে তার জন্য এসব শিক্ষার্থীরা সামনে চলার অনুপ্রেরণা পাবে। এবং বাল্যবিবাহ, জঙ্গী, অপসংস্কৃতি, নেশা থেকে দূরে থেকে নিজেদের আরও যোগ্য থেকে যোগ্যতর অবস্থানে নিয়ে যেতে পারবে’।
প্রতিযোগিতায় আবৃত্তিতে প্রথম স্থান অধিকার করেছে, টিএন্ডটি আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ের মোসা. আফরিন আক্তার, দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন এডুকো পাঠশালার সান্তা আক্তার, তৃতীয় স্থান অধিকার করেন এডুকো পাঠশালার মিম আক্তার, চতুর্থ স্থান অধিকার করেছেন, যৌথভাবে জাগো ফাউন্ডেশনের সুমাইয়া ইসলাম ও এডুকো পাঠশালার মুক্তা আক্তার। কবিতা সঙ্গীতে প্রথম স্থান অধিকার করেন বনানী মডেল স্কুলের কামরুন্নাহার, দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন টিএন্ডটি আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ের মোসা. মুক্তা আক্তার, তৃতীয় স্থান অধিকার করেন মহাখালী মডেল হাই স্কুলের উর্মি আক্তার চতুর্থ স্থান অধিকার করেছেন একই স্কুলের, ফাতেমা আক্তার পঞ্চম স্থান অধিকার করেছেন বনানী মডেল স্কুলের সোনিয়া আক্তার দুলুফা।

বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, হাবীবা ইয়াসমীন তমা, মীর শামসুন্নাহার তমা। অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, স্বপ্নকলার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মোহাম্মদ সোহেল, আবিদা সুলতানা, আশা মনি, জান্নাতুল মাওয়া অনন্যা, তানজিলা ইসলাম চৈতি প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরুস্কার ও সনদপত্র বিতরণ করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই