মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরার খবর (৫/৯/১৪)

## সাতক্ষীরায় চায়না-বাংলা ফুড্স এর উদ্বোধন:
ভেজালমুক্ত ও মানসম্মত খাবারের প্রতিশ্রৃতি নিয়ে সাতক্ষীরায় যাত্রা শুরু করলো চায়না বাংলা ফুড্স’র। বৃহস্পতিবার বিসিক শিল্পনগরীতে সাতক্ষীরা পৌর মেয়র আলহাজ্ব এম.এ জলিলের সভাপতিত্বে এ ফুড্সের উদ্বোধন ঘোষনা করেন সাতক্ষীরা ১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সদর সার্কেল এসপি মীর মোদাচ্ছের হোসেন, সাতক্ষীরা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি নাসিম ফারুক খান মিঠু, বিসিক কর্মকর্তা আব্দুল ওদুদ, জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মহসীন আলী, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শেখ আজহার হোসেন, বিশিষ্ট চিকিৎসক ও সমাজসেবক আলহাজ্ব আবুল কালাম বাবলা, জেলা নির্বাচন অফিসার মো: আবুল হোসেন, বিসিক কর্মকর্তা ফারুকী নাজনীন, জেলা উন্নয়ন সংস্থার আহবায়ক কামরুল ইসলাম ফারুক। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর প্যানেল মেয়র শেখ শফিক উদ দৌলা সাগর, কাউন্সিলর ফরিদা আক্তার বিউটি, ফারহা দিবা খান সাথী, সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, এনটিভি’র জেলা প্রতিনিধি সুভাষ চৌধুরী, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এড. শাহনাজ পারভীন মিলি, হাফেজ মাওলানা শাহাদাত হোসেন প্রমুখ।

## সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার উদ্বোধন:
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বসানো হয়েছে। জনগনের সেবা নিশ্চিত ও হয়রানি মুক্ত করা এবং প্রশাসনের স্বচ্ছতা ,জবাবদিহিতা ও দুর্নীতি ,অনিয়ম প্রতিরোধে এই ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের রেকর্ড রুম,তথ্য সেবা কেন্দ্র , রাজস্ব বিভাগসহ বিভিন্ন বিভাগে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার উদ্বোধন কনের। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: মহাসিন আলী, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেট রাশেদুল হাসান,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) লস্কর তাজুর ইসলামসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা উদ্বোধনকালে বলেন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ক্লোজ সার্টিক ক্যামেরার আওতায় আনার ফলে জনগনের সেবা নিশ্চিত হবে। জেলা প্রশাসক তার রুমে বসেই রেকর্ড রুম,তথ্য সেবা কেন্দ্র, রাজস্ব শাখা,জেলা হিসাবরক্ষন অফিসহ বিভিন্ন বিভাগের কার্যক্রম সার্বক্ষনি করতে পারবেন। ফলে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাজের স্বচ্ছতা ও জবাব দিহিতা আরও বৃদ্ধি পাবে।

## সাতক্ষীরায় মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু:
সাতক্ষীরা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এম.আর.পি) কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সর্বস্তরের জণগণের সেবার প্রত্যাশা নিয়ে বুধবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এখন সাতক্ষীরায় পাসপোর্ট অফিসে জরুরী ফি পরিশোধ সাপেক্ষে সবোর্চ্চ ১০ কর্মদিবসের মধ্যে এবং সাধারণ ফি পরিশোধ সাপেক্ষে সবোর্চ্চ ২৫ কর্মদিবসের মধ্যে সাতক্ষীরা হতেই মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট সরবরাহ করা হবে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ফি সহ আবেদন ফরম জমা দেয়ার সময় আবেদনকারীকে ছবি তোলা ও ফিঙ্গার প্রিন্ট গ্রহনের তারিখ/সময় জানিয়ে দেয়া হবে। অত:পর ছবি তোলা/ফিঙ্গার প্রিন্ট গ্রহনের পর পুলিশ ভেরিফিকেশন রিপোর্ট প্রাপ্তি সাপেক্ষে আবেদনকারীকে এসএমএস এর মাধ্যমে পাসপোর্ট সরবরাহের তারিখ জানিয়ে দেয়া হবে। মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট কার্যক্রম সম্পর্কে জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান জানান,“সাতক্ষীরায় মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এখন থেকে পাসপোর্ট করার জন্য কাউকে খুলনা বা অন্য কোথাও যাওয়ার প্রয়োজন হবেনা। এছাড়া পাসপোর্ট রেডি হওয়ার সাথে সাথে (নির্ধারিত সময়ের মধ্যে) তাদের মোবাইলে এস.এম.এস চলে যাবে। এতে জেলার পাসপোর্ট গ্রহীতারা উপকৃত হবেন।” এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর মোদাচ্ছের হোসেন, সাতক্ষীরা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ সহকারী পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান, সাংবাদিক ইয়ারব হোসেন সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

## দেড় কোটি টাকার ভারতীয় কাপড় উদ্ধার:
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় বিজিবি অভিযান চালিয়ে ট্রাক ভর্তি প্রায় দেড় কোটি টাকার ভারতীয় কাপড় উদ্ধার করেছে। তবে, বিজিবি এ সময় কোন চোরাকারবারীকে আটক করতে সক্ষম হয়নি। বুধবার ভোর ৬ টার দিকে কলারোয়া উপজেলার কাজীরহাট এলাকা থেকে এ কাপড় উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত কাপড়ের মধ্যে রয়েছে- ভারতীয় উন্নতমানের শাড়ি, থ্রি-পিস ও থান কাপড়।
সাতক্ষীরা ৩৮ ব্যাটালিয়নের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর নজির আহমেদ বকশী জানান, সাতক্ষীরা সীমান্ত থেকে চোরাকারবারীরা ট্রাক ভর্তি বিপুল পরিমান মালামাল নিয়ে রাজধানী ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির হাবিলদার মোস্তফার নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা কলারোয়া উপজেলার কাজীরহাট এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় বিজিবি’র উপস্থিতি টের পেয়ে চোরাকারবারীরা ট্রাকসহ মালামাল ফেলে পালিয়ে যায়। এসময় সেখান থেকে ৬৭ গাইড ভারতীয় কাপড় উদ্ধার করা হয় । যার মূল্য প্রায় দেড় কোটি। ##

## সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ——
কলারোয়া আ’লীগের সভাপতি করা হচ্ছে শেখ হাসিনার গাড়ী বহরে হামলা মামলার বিপক্ষে স্বাক্ষদানকারীকে:
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ২০০২ সালের ৩০ আগষ্ট তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়ী বহরে হামলা সংক্রান্ত মামলার বিপক্ষে স্বাক্ষদানকারী ফিরোজ আহমেদ স্বপনকে কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি করা হচ্ছে। আগামী ৬ সেপ্টেম্বর উপজেলা কাউন্সিলের মাধ্যমে গভীর ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তাকে সভাপতি করার জন্য ইতিমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। আর এই কাউন্সিল নির্বাচনে যাদেরকে কাউন্সিলর হিসিবে ভোটার করা হয়েছে তাদের সিংহভাগই এক সময়ের জামায়াত-বিএনপি নেতা-কর্মী ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। মাঠ পর্যায়ের আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদেরকে বাদ দিয়ে জামায়াত-বিএনপির প্রাক্তন নেতাদেরকে আ’লীগের কাউন্সিল করায় ব্যাপক ক্ষুব্ধ হয়েছেন স্থানীয় আ’লীগের নেতা-কর্ম-সমর্থকরা।বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে কেন্দ্রীয় সৈনিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার মুজিব এক সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন।
সরদার মুজিব সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন, কলারোয়ায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার গাড়ী বহরে হামলা হয় ২০০২ সালের ৩০ আগষ্ট।বিএনপি যুবদল ও ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা এই হামলার ঘটনায় জড়ীত ছিল।এ ঘটনায় তৎকালীন কলারোয়া উপজেলা আওয়ামলীগের সাধারন সম্পাদক কমান্ডর মসলেমউদ্দিন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে। এই মামলায় প্রধান স্বাক্ষি করা হয় কমান্ডার মসলেউদ্দিনের জামাতা ফিরোজ আহম্মেদ স্বপনকে। ২০০৫ সালে ওই মামলায় শেখ হাসিনার বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে তার গাড়ী বহরে হামলা হয়নি এই মর্মে আদালতে গিয়ে লিখিত স্বাক্ষি দেয়ার কারনে মামলাটি আদালত থেকে খারিজ হয়ে যায়। সেই স্বপনকেই গভীর ষড়যন্ত্রের মাধ্যমেই করা হচ্ছে কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।
সরদার মুজিব বলেন, ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন এলাকায় একটি সন্ত্রাসী বাহিনী তৈরী করেছে। তিনি ছাত্র জীবন থেকেই জামায়াত ও বিএনপি মনা। গত নির্বাচনে তিনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হওয়ার পর থেকে সে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রানী কর্মকান্ডের নানা অভিযোগও রয়েছে। কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলকে সামনে রেখে তার কলারোয়াস্থ বাড়ীতে প্রতিটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদককে ডেকে তাদের ওপর চাপসৃষ্টি করে বিতর্কতি একটি ভোটার তালিকায় স্বাক্ষর করে নিয়েছে। এই ভোটার তালিকায় যাদেরকে ভোটার করা হয়েছে তাদের অধিকাংশই এক সময় জামায়াত ও বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়ীত ছিল বলে তিনি অভিযোগ করেন। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিনি আগামী ৬ সেপ্টেম্বর কলারোয়া উপজেলার কাউন্সিল স্থগিত করার দাবী করেছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে। একই সাথে ত্যাগী নেতাদের অন্তভূক্ত করে নতুন ভোটার তালিকা করারও দাবি জানান সংবাদ সম্মেলনে।
এ ব্যাপারে ফিরোজ আহমেদ স্বপনের সাথে সেল ফোনে কথা বললে তিনি বলেন, সরদার মুজিব যেসব অবিযোগ করেছে তা সবই মিথ্যে ও বানোয়াট। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচী আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্ত অমান্য করে তালা-কলারোয়া আসনে স্বতন্ত্র প্রাথৃী হিসেবে এমপি নির্বাচন করে।

## পারেটিভ ব্যাংকের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত
সাতক্ষীরা সেন্টাল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ এর ৪৬ তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বেলা ১২টায় ব্যাংক প্রাঙ্গণে সহ: সভাপতি মোঃ আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে প্রধান অতথি হিসাবে বক্তব্য সাতক্ষীরা সেন্টাল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ এর নব নির্বাচিত সভাপতি এম খলিলুল্লাহ ঝড়–। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন অবসর প্রাপ্ত সমবায় কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রব ওয়ার্ছী, উপজেলা সমবায় অফিসার মোঃ শফিকুল ইসলাম। বার্ষিক সাধারন সভা পূর্বক ৬ সদস্য বিশিষ্ট একটি নির্বাচিত নিবার্হী কমিটি ঘোষনা করা হয়। এ কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হন এম. খলিলুল্লাহ ঝড়ু, সহ সভাপতি- মোঃ আব্দুল লতিফ, সদস্য মনিরুল ইসলাম, আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুস সাত্তার, বাসুদেব মন্ডল। এসময় বক্তব্য রাখেন স.ম হায়দার, শেখ মামুন উর রশিদ, আলমগীর হোসেন, আবুল হোসেন, সুনীল বৈদ্য, আকবার আলী, নাসির সরদার প্রমুখ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই