মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরার খবর (২৭/৬/১৪)

## ভোমরা স্থল বন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ
সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দর সিএন্ডএফ কর্মচারী এ্যাসোসিয়েশন সাধারন সভার ডাক দেয়ায় বুধবার সকাল থেকে বন্দরের সব ধরনের আমদানি রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এর ফলে ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে শতাধিক আমদানী পণ্যবাহী ট্রাক আটকা পড়ে আছে।
ভোমরা স্থল বন্দর সিএন্ডএফ কর্মচারী এসোসিয়েশন সূত্রে জানা যায়, বন্দর সিএন্ডএফ কর্মচারী এ্যাসোসিয়েশনের তাদের সাধারন সভার কারনে আজ আমদানী রপ্তানী কার্যক্রমে তারা যোগদান না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। পাশাপাশি তারা আমদানী রপ্তানী কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য সিএন্ডএফ এ্যসোসিয়েশন ও বন্দর সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন।
ভোমরা স্থল বন্দর কাস্টমস কর্মকর্তা উত্তম কুমার এ বিষয়টি সত্যতা স্বীকার করে জানান, এই একদিন ভোমারা স্থল বন্দরের আমাদানী-রপ্তানী কার্যক্রম বন্ধ থাকার কারনে সরকার প্রায় ৪০ লাখ টাকার রাজস্ব হারাবে।

## সাতক্ষীরায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের বিনামুল্যে বীজ ও সার বিতরণ
সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরায় রোপা আমন ফসলে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনায় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আছাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান উপকারভোগী ৪০০ জন কৃষকের মাঝে নেরিকা ধানবীজ ১০ কেজি, ডিএসপি সার ২০ কেজি ও এমওপি সার ১০ কেজি করে প্রদান করেন। বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পিপিএস জি.এম.এ গফুর, সদর উপজেলা কৃষি অফিসার দীপক কুমার রায়। খরিপ-২/২০১৪-১৫ মৌসুমে রোপা আমন ফসলে নেরিকা জাত) প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় জেলার ৭টি উপজেলায় মোট ১৬ হাজার ৯শ মেঃ টন বীজ বরাদ্দ করা হয়েছে। তার মধ্যে নেরিকা-১ ৪ হাজার ৯শ মেঃ টন, নেরিকা-১০ ৫ হাজার ৪শ মেঃ টন এবং নেরিকা মিউট্যান্ট ৬ হাজার ৬শ মেঃ টন বীজ বরাদ্ধ করা হয়েছে এবং জেলার ৭টি উপজেলা মোট ৫০ হাজার ৮শ মেঃ টন সার বরাদ্দ করা হয়েছে। তার মধ্যে ডিএমপি সার ৩৩ হাজার ৮শ এবং এমওপি সার ১৬ হাজার ৯শ মেঃ টন। এসময় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা/কর্মচারী ও ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।

## জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৪ উদ্যাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা
সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি : ‘অন্ন বস্ত্র বাসস্থান, মাছ চাষে সমাধান’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আগামী ২-৮ জুলাই জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৪ উদ্যাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল অদুদ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মহসিন আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) লস্কার তাজুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল বারী, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ শিশির কুমার সরকার, উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মোঃ মিকাঈল হোসেন, জাতীয় মৎস্যজীবি সমিতি জেলা শাখার সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম, জেলা জনমহল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য মোঃ জিল্লুর রহমান, ক্ষুদ্র মৎস্যজীবি সমিতির সভাপতি ডাঃ আলী আরশাদ, জাতীয় মৎস্যজীবি সমিতির শ্যামনগর শাখার সভাপতি মধুজিৎ রপ্তান, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান প্রমুখ।

## কলেজ শিক্ষকের বাড়ি থেকে ১৭ ভরি সোনা ও নগদ টাকা চুরি
সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরা শহরের ফুড অফিস মোড় সংলগ্ন কাটিয়া সরকার পাড়ার এলাকার অবসর প্রাপ্ত এক কলেজ শিক্ষকের বাড়িতে দুধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। চোরেরা এ সময় বাড়ির গ্রীল কেটে ১৭ ভরি সোনা ও নগদ ৫হাজার টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। সাতক্ষীরা সরকারী কলেজের অবসর প্রাপ্ত প্রফেসর জাহিদ আনোয়ার শাহ জানান, বুধবার রাত আড়াইটার দিকে একদল চোর তার বাড়ির রান্না ঘরের গ্রীল কেটে ভিতরে প্রবেশ করে। এ সময় তারা চেতনা নাশক স্প্রে দিয়ে বাড়ির সবাই অজ্ঞান করে ফেলে। পরে তারা ঘরের ষ্টীলের আলমারী ভেঙ্গে ১৭ ভরি সোনা ও নগদ ৫হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি ইনামুল হক ঘটনাটির সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই