মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরার কিছু খবর (৩১/১০/১৪)

সাতক্ষীরার তলুইগাছা সীমান্তে ভারতীয় কাপড় আটক: সাতক্ষীরার তলুই গাছা ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা এক অভিযান চালিয়ে তিন গাইড ভারতীয় শাটের কাপড় আটক করেছে । গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সকালে বিজিবি কাপড়গুলো আটক করে । আটককৃত কাপড়ের মুল্য ১লাখ ৯৭ হাজার টাকা। শাড়ি
তলুই গাছা ক্যাম্পের কোম্পানি কমন্ডার সুবেদার ফয়েজ উদ্দীন জানান , গোপন সংবাদের দক্ষিন কেড়াগাছি প্রাইমারি স্কুলের পিছন দিয়ে এক দল চোরাকারবারি ভারত থেকে চোরাই মালামাল নিয়ে যাচ্ছে । এসময় তার নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা অভিযান পরিচালনা করে। বিজিবির অবস্থান দেখতে পেয়ে চোরাচালানিরা এই শাটের কাপড় ফেলে পালিয়ে যায়। এ সময় কোন চোরাকারবারিকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

 

ঢিলেঢালা ভাবে হরতাল পালিত॥ জামায়াত-শিবির মাঠে নেই: নিজামীর ফাঁসির রায়ের প্রতিবাদে জামায়াতের ডাকা ৭২ ঘন্টার হরতালের প্রথম দিনে সাতক্ষীরায় ঢিলেঢালা পালিত হচ্ছে। হরতালের সমর্থনে সকাল থেকে দূরপার্লার সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। জেলার আভ্যন্তরিন সড়কেও যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে ভ্যান, রিক্সা, ইঞ্জিনচালিত নসিমন, করিমন চলাচল করছে। হরতাল
সকাল থেকে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে কিছু কিছু দোকানপাট খুলতে শুরু করেছে।
সাতক্ষীরা শহরের বিভিন্ন মোড়ে পুলিশ, র‌্যাব টহল দিচ্ছে। তবে জেলার কোথাও হরতালের সমর্থনে মিছিল, মিটিং,সমাবেশের খবর পাওয়া যায়নি। জামায়াত-শিবির হরতাল ডেকে মাঠে নেই। জেলার বিভিন্ন উপজেলায় হরতালের নামে নাশকতা সৃষ্টি করতে যাতে না পারে সেজন্য একাধিক মোবাইল টিম টহল দিচ্ছে। অপরদিকে সাতক্ষীরা ভোমরা স্থল বন্দর আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে।

বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত: সাতক্ষীরার বিনেরপোতা এলাকায় বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার বিকেল পৌনে চারটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, তালা উপজেলার নগরঘাটা এলাকার আলিমুল ইসলাম,সদর উপজেলার লাবসা গ্রামের আব্দুল জব্বারসহ ১০ জন। তাদেরকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সদর থানার ওসি গোলাম রহমান জানান, সাতক্ষীরা অভিমুখি যশোর-ট-১১২৬৮৬ নম্বরের ট্রাক একটি বাসকে ওভারটেক করে এগিয়ে যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা খুলনা-ব-১১৮৬ নম্বরের বাসটির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে বাস ও ট্রাকের আংশিক দুমড়ে মুচড়ে যায়।

নিজামীর ফাঁসির রায়ে সাতক্ষীরায় আনন্দ মিছিল: জামায়াতের আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর যুদ্ধাপরাধ মামলায় ফাঁসির রায় ঘোষনার পর সাতক্ষীরা আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ১৪ দল। সাতক্ষীরা জেলা ১৪ দলের নেতা-কর্মীরা বুধবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মোড় থেকে আনন্দ মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব দেন জেলা ১৪ দলের সমন্বয়ক অ্যাড: মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এম পি, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রকৌশলী শেখ মুজিবুর রহমান, সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা পরিষদ প্রশাসক মনসুর আহম্মেদ,জাসদের ইদ্রিস আলী প্রমুখ। DSC00836
আনন্দ মিছিলটি জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে এক সমাবেশ করে। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রকৌশলী শেখ মুজিবুর রহমান। বক্তারা অবিলম্বে মতিউর রহমানের ফাঁসির রায় কার্যকর করার দাবি জানান।

 

বাংলাদেশীকে নির্যাতন চালিয়ে আহত করেছে বিএসএফ: ভারতীয় সীমান্ত রক্ষি বাহিনী বিএসএফ সদস্যরা নূর হোসেন (২৪) নামের এক বাংলাদেশী যুবককে মধ্যেযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালিয়ে আহত করেছে। বুধবার ভোরে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার গাজিপুর সীমান্তের বিপরীতে ভারতের বশিরহাট থানার ঘোজাডাঙ্গা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত বাংলাদেশীকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের মোতালেব গাজির ছেলে। বিএসএফ আহত নূর হোসেন, জানান, মঙ্গলবার রাতে সে ভারতে কাজ করার জন্য সদর উপজলোর গাজিপুর সীমান্ত পার হয়ে ভারতের ঘোজাডাঙ্গা এলাকায় যায়। বুধবার ভোরে সে বশিরহাটা থানার বারউপাড়া এলাকায় পৌছালে বিএসএফ সদস্যরা তাকে আটক করে। পরে তাকে ঘোজাডাঙ্গা বিএসএফ ক্যাম্পে নিয়ে যেয়ে তার উপর অমানুষিক নির্যাতন চালানো হয়। পরে তাকে মাঠে ফেলে দিয়ে যায় বিএসএফ সদস্যরা । কৌশলে সে দেশে ফিরে আসে। তার স্বজনরা তাকে মারাত্মক আহত অবস্থায়  সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।
সাতক্ষীরা ৩৮বিজিবি ব্যাটালিয়নের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর নজীর আহম্মেদ জানান, ঘটনাটি লোকমুখে তিনি শুনেছেন।

জামায়াত শিবিরকর্মীসহ ৪৯ জন আটক:
স্টাফ রিপোর্টার ॥ জামায়াতের আমীর মতিউর রহমান নিজামীর রায়কে কেন্দ্র করে সাতক্ষীরা জেলায় পুলিশ ঝটিকা অভিযান চালিয়ে ১৩ জামায়াত-শিবিরকর্মীসহ মোট ৪৯ জনকে আটক করেছে। মঙ্গলবার জেলার বিভিন্ন থানায় রাতভর অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। এর মধ্যে সাতক্ষীরা সদর থানা থেকে ৯ জন, শ্যামনগর থেকে ৬ জন , কালিগঞ্জ থেকে ৪ জন, দেবহাটা থেকে ৪ জন , কলারোয়া থেকে ১১জন, তালা থেকে ৬জন, আশাশুনি থেকে ৪ জন এবং পাটকেলঘাটা থেকে ৫ জন। আটক,সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৈয়দ মোদ্দাচ্ছের আলী এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নাশকতা সৃষ্টি, গাড়ী ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগের ঘটনায় জামায়াত শিবিরকর্মীসহ ওয়ারেন্টভুক্ত আরো ৩৬ জনসহ মোট ৪৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তিনি আরো জানান, নিজামীর রায়কে কেন্দ্র করে যাতে কোন নাশকতা বা সহিংসতার সৃষ্টি না হয়, সেজন্য জেলায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

সদর উপেজেলা যুবলীগের বিশেষ জরুরী সভা: জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমান “আমাদের দেশের স্বাধীনতা রক্ষায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগকে এগিয়ে আসতে হবে। সকলকে একত্রিত হয়ে সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে মোকাবেলা করতে হবে। আগামী দেখেছি ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে যে অপশক্তি গাছ কাটা, মানুষ হত্যা, বাড়ী পোড়ানো, গাড়ীতে অগ্নী সংযোগের মতো জঘন্নতম কাজ করেছে। যারা এই কাজ করেছে তারা কখনো এই বাংলাদেশের স্বাধীনতা চায়না। সুতরাং স্বাধীনতার সার্বভৌমত্ব রক্ষায় যুবকদের এগিয়ে আসতে হবে। সর্বপরি আমাদের খেয়াল রাখতে হবে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের পরাজিত শক্তি যেন আর বাংলার মাটিতে আর যেন মাথা চাড়া দিয়ে না উঠতে পারে।” বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সদর উপজেলা যুবলীগের বিশেষ জরুরী সভায় আহবায়ক মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমান এসব কথা বলেন। DSC00826 সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নজরুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আছাদুজ্জামান বাবু, জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, জেলা আওয়ামী প্রজন্মলীগের সভাপতি আবু সাঈদ, সাধারণ সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আফজাল হোসেন মারুফ, মঈনুল ইসলাম, জাহিদ হাসান, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ বিল্লাহ, আগড়দাঁড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক সামছুর রহমান, শিবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আবুল কাসেম, লাবসা ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আহাদুজ্জামান, বল্লী ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আজহারুল, ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আব্দুর রশীদ, আলিপুর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক মোঃ মহিবুল্লাহ, ঘোনা ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক লাবলু, ধুলিহর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক বজলুর রহমান, ফিংড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক সোহাগ হোসেন। এসময় সদর উপজেলা যুবলীগ ও ১৪টি ইউনিয়ন যুবলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আফজাল হোসেন মারুফ ও জাহিদ হাসান।






মন্তব্য চালু নেই