মেইন ম্যেনু

কলারোয়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা

নিজেকে বিকশিত করার অন্যতম ক্ষেত্র হলো সাংবাদিকতা : এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ,এমপি

সংসদ সদস্য এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ বলেছেন, গঠনমূলক সকল সামাজিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিতে পারেন সাংবাদিকরা। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, নিজেকে বিকশিত করার একটি অন্যতম ক্ষেত্র হলো সাংবাদিকতা। আপনাদের লেখনীর বস্তুনিষ্ঠতা ও সৃজনশীলতা আপনাদের নিয়ে যেতে পারে এক অনন্য উচ্চতায়। নিজের প্রতিভার সবটুকু নিবেদন করে সময়ের উপযোগী সংবাদ পরিবশেনে নিজেকে প্রস্তুত করে তুলুন। আপনাদের লেখনীর গতিধারায় এগিয়ে যাক এ সমাজ, এদেশ। বুধবার বেলা ১২ টার দিকে কলারোয়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে সৌজন্য মত বিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে সংবাদ পরিবেশেনের জন্য আজকের দিনে সংবাদিকদের করতে হয় নানা গবেষণা ও চর্চা। প্রেসক্লাবে সাংবাদিকতার উপযোগী নানা ধরনের বইয়ের সমাহার থাকতে হবে। নিবিড় পাঠাভ্যাসের মতো স্থান থাকতে হবে। সেরকম পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজন একটি নিজস্ব ভবন। সবার মিলিত প্রচেষ্টা থাকলে তা বিনির্মাণ অসম্ভবও নয়। কলারোয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু বলেন, সাংবাদিকরা দেশের চরম ক্রান্তিকাল ও দুর্যোগে যে সাহসিকতা ও আত্মত্যাগ প্রদর্শন করেন, তা অতুলনীয়। তিনি সাংবাদিকদের সব ধরনের গঠনমূলক কাজে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার দশ মাস পর কলারোয়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে আনুষ্ঠানিক প্রথম এই মত বিনিময়কালে এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ তাঁর নানা ইচ্ছা ও প্রত্যাশার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, পুলিশ প্রোটেকশান ছাড়াই আমি সবখানে অবাধ বিচরণ করি। কেননা, আমি মনে করি, আমার নিরাপত্তা থাকলে, সাধারণ মানুষেরও নিরাপত্তা থাকবে। এ এলাকায় যেনো কেউ চাঁদাবাজির শিকার না হয়, কেউ যেনো পুলিশি হয়রানির মুখে না পড়েন, বেকারদের যেনো কর্মসংস্থান হয়। কপোতাক্ষ-বেতনা যেনো নাব্যতা ফিরে পায়-এমন অনেক স্বপ্নের কথাই তিনি বলেন। তিনি বলেন, এই কলারোয়ায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন হবে, হবে স্টেডিয়ামসহ নানা প্রয়োজনীয় অবকাঠামো। সবশেষে তিনি কৃষকদের সাফল্য, সম্ভাবনা ও সমস্যার কথা তুলে ধরার পাশাপাশি তাঁর কোনো ভুল-ত্রুটিরও গঠনমূলক সমালোচনা করার জন্য সাংবাদিকদের প্রতি আহবান জানান। কলারোয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক প্রধান শিক্ষক রাশেদুল হাসান কামরুল সঞ্চালিত এ মতবিনিময় সভায় আলোচনা করেন ও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও লাঙ্গলঝাড়া ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক এমএ কালাম, কেরালকাতা ইউপি চেয়ারম্যান সম মোরশেদ আলি, অধ্যক্ষ গাজী রবিউল ইসলাম, কলারোয়া পাবলিক ইনস্টিটিউট’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শেখ কামাল রেজা, প্রবীণ সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন, শেখ মোসলেম আহম্মেদ, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি হাসান মাসুদ পলাশ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক আরিফ মাহমুদ, সাহিত্য সম্পাদক এমএ মাসুদ রানা, নির্বাহী সদস্য মাস্টার দীপক শেঠ, সাংবাদিক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, আতাউর রহমান, এমএ সাজেদ, অধ্যাপক কেএম আনিছুর রহমান, জাকির হোসেন, মাস্টার আমজাদ হোসেন, আসাদুজ্জামান আসাদ, সুজাউল হক, আ’লীগ নেতা মশিয়ার রহমান, মারুফ হোসেন, প্রভাষক আজিজুর রহমান, প্রভাষক কার্ত্তিক চন্দ্র মিত্র, কাজী আব্দুল ওহাব, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, মাস্টার সিরাজুল ইসলাম, ডা: পিযুষ কুমার, লাভলু করিম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই