মেইন ম্যেনু

পুতিনকে হলাঁদ ও মের্কেলের ফোন

সিভারস্ক জয় করলো ইউক্রেন

ইউক্রেন আরও একটি শহর উদ্ধার করেছে। সিভারস্ক। স্লোভিয়ানস্কের পূর্বে অবস্থিত শহরটি ছেড়ে সশস্ত্র রুশপন্থী পালিয়ে গেছে। ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর ‍মুখপাত্র ভ্লাদিমির সেলেঝনিওভ এ তথ্য জানান।
বার্তাসংস্থা রয়টার্স এ বিষয়ে জনৈক রুশপন্থীকে প্রশ্ন করলে রুশপন্থী সশস্ত্র যোদ্ধা জানান, তথ্যটি কমবেশি সত্য। তবে সিভারস্ক তারা নিজ থেকেই ছেড়ে যেতেন। কেননা সেখানে অবস্থান করলে, ঘেরাও হয়ে যাওয়ার ভয় ছিল।
রুশপন্থীদের সঙ্গে সম্মুখ যুদ্ধ ও অন্যান্য কারণে আবারও প্রাণহানির মুখে পগেছে ইউক্রেনীয় সেনারা। বুধ ও বৃহস্পতিবার মিলে আরও ৩ সেনা নিহত হয়েছেন।
জানা গেছে, তিন নিহতের একজন লুহানস্কে রুশপন্থীদের গেরিলা হামলায় নিহত হন। অপর দুই জন দনেৎসের নিকটবর্তী শেরভোনা জোরিয়া গ্রামে রুশপন্থীদের পুঁতে রাখা মাইন বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন।
এদিকে গত মে মাসে প্রচণ্ড যুদ্ধের মুখে দখল করতে সমর্থ হওয়ার দনেৎস বিমানবন্দরে আবারও আক্রমণের মুখোমুখি হয়েছে ইউক্রেনীয় সেনারা। অবস্থানকৃত সেনাদের ওপর বৃহস্পতিবার মর্টার হামলা চালানো হয়। সেলেঝনিওভ বলেন, রুশপন্থীদের ঠেকিয়ে দেয়া সম্ভব হয়েছে।
ইউক্রেন-রুশপন্থী চলমান সংঘাতকে ঘিরে আবারও সরব হয়েছে পশ্চিম। রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনকে, রুশপন্থীদের নিয়ন্ত্রণে শক্তিশালী উদ্যোগ নিতে চাপ প্রয়োগ করে যাচ্ছেন ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ফ্রাঁসোয়া হলাঁদ ও জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল।
এখনও পর্যন্ত দুরালাপনে কূটনৈতিক ব্যাক্তিবর্গের কথোপকথন হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই