মেইন ম্যেনু

বালিয়াকান্দির চামটা প্রাইমারী স্কুল ভবন ৫বছর পরিত্যক্ত ঘোষনা ॥ শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়নের চামটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পুরাতন ভবন ৫ বছর পুর্বে পরিত্যক্ত ঘোষনা করা হয়েছে। নতুন কোন ভবন বরাদ্ধ না হওয়ায় জীবনের ঝুকি নিয়ে চলছে পঞ্চম শ্রেনীর ক্লাস ও শিক্ষকদের লাইব্রেরী।

চামটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পুষ্প রানী রায় জানান, স্কুলে শিশু শ্রেণীতে ৩৭জন, প্রথম শ্রেণীতে ৪৯জন, দ্বিতীয় শ্রেণীতে ৪৭জন, তৃতীয় শ্রেণীতে ৬১জন, চতুর্থ শ্রেণীতে ৫৪জন, পঞ্চম শ্রেণীতে ২১জন শিক্ষার্থী রয়েছে। স্কুলে শিক্ষক রয়েছে ৬জন। স্কুলের পুরাতন ভবনের পলেস্তরা খসে পড়ছে, বৃষ্টি আসলে পানি পড়ে। ৫বছর পুর্বে ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষনা করা হয়েছে।

পাশের একটি একতলা ভবন রয়েছে। সেখানেও শিক্ষার্থীদের গাদাগাদি করে বসতে হয়। পর্যাপ্ত টেলিব না থাকায় শিক্ষার্থীদের পোহাতে হয় নানা দুর্ভোগ। ওই ভবনে জায়গার সংকুলান না হওয়ায় জরাজীর্ণ ও ঝুকিপুর্ন ভবনেই পঞ্চম শ্রেণীর ক্লাস নিতে হচ্ছে। আর শিক্ষকদের বসার জায়গা না থাকার কারণে ওই ঝুকিপুর্ন ভবনেই লাইব্রেরীর কাজ করা হচ্ছে। প্রায়ই পলেস্তরা খসে খসে পড়ছে। উপায়ন্ত না পেয়ে জীবনের ঝুকি নিয়ে পরিত্যক্ত ভবনেই পাঠদান ও লাইব্রেরীর কাজ কর্ম চলছে। তিনি দ্রুত কর্তৃপক্ষকে নতুন ভবন ও বেঞ্চের ব্যবস্থার দাবী জানান।

স্কুলের সভাপতি অসীত বরণ রায় জানান, স্কুল ভবন ও বেঞ্চ সংকটের বিষয়ে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক রফিকুল ইসলাম খান, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসানসহ কর্মকর্তাদের দেখানো হয়েছে। দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দিলেও এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়নি।






মন্তব্য চালু নেই