মেইন ম্যেনু

দুর্নীতি ও অর্থের অপচয় রোধ করে চট্টগ্রামের উন্নয়নে সর্বোচ্চ ত্যাগের অঙ্গীকার

দুর্নীতি ও অর্থের অপচয় রোধ করে চট্টগ্রামের উন্নয়নে সর্বোচ্চ ত্যাগের অঙ্গীকার করে ২২ দফা নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সমর্থিত ইসলামী নগর উন্নয়ন আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী আলহাজ মাওলানা ওয়ায়েজ হোসেন ভূঁইয়া। তিনি বলেছেন, সিটি কর্পোরেশনের নিয়মিত কাজগুলোর মধ্যে রাস্ত-ঘাটের মেরামত, মশক নিধন, জলবদ্ধতা নিরসন, খাল খনন ও স্কুল-কলেজ পরিচালনা, কর্মচারী-কর্মকর্তাদের বেতন নির্বাহ করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অন্যান্য সিটি কর্পোরেশনগুলোর তুলনায় চট্টগ্রাম অনেক বেশি স্বয়ংসম্পূর্ণ। যোগ্য, সৃজনশীল ও খোদাভীরু নগরপিতার অভাবে চট্টগ্রাম অবহেলিত রয়েছে। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে অন্তরে মহান আল্লাহর ভয় রেখে জনগণের করের পয়সাকে যথার্থ কাজে লাগিয়ে চট্টগ্রামের উন্নয়নে প্রয়োজনে নিজের জীবন কুরবান করবো ইনশাআল্লাহ। আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল ১১ ঘটিকায় নগরীর প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে ‘মেয়র আসে মেয়র যায়, জনদুর্ভোগ বৃদ্ধি পায়, এই ধারার অবসান চাই, আসুন সকলে মিলে জনমুখে হাসি ফোটাই’ শিরোনামে নির্বাচনী ঘোষণা করেন পীর সাহেব চরমোনাই মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ মাওলানা ওয়ায়েজ হোসেন ভূঁইয়া।

দুর্নীতির মূলোৎপাটন, জলবদ্ধতা নিরসন, ভেজালমুক্ত খাদ্য ও ইনসাফপূর্ণ বাজার নিয়ন্ত্রণ, উন্নয়নে বিশেষজ্ঞ কমিটি, শ্রমের মর্যাদা প্রতিষ্ঠা, বাসা ভাড়া সহনশীল, ব্যবসা-বাণিজ্যে নিরাপত্তা, হকারদের জন্য স্থায়ী বরাদ্দ, পথিক ও ভ্রাম্যমান মানুষের জন্য পাবলিক টয়লেট, অসহায়দের জন্য সহায়তা ব্যাংক, নারী জাতির অধিকার ও মর্যাদা সমুন্নত করা, পাবলিক বাসে সংরক্ষিত সিটের বৃদ্ধি, পৃথক বাস ব্যবস্থা ও কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দান প্রতিষ্ঠাসহ চট্টগ্রামকে পরিকল্পিতভাবে উন্নয়নের ২২ দফা ইশতেহার তুলে ধরেন মেয়র প্রার্থী ওয়ায়েজ হোসেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর, উত্তরবঙ্গে বৃহত্তর ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান বগুড়া মাদরাসার শায়খুল হাদীস আল্লামা আবদুল হক আজাদ, চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি ও ইসলামী নগর উন্নয়ন আন্দোলনের আহ্বায়ক আলহাজ জান্নাতুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সহ-দফতর সম্পাদক মুফতী মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসাইন সাকী, প্রখ্যাত মুফাসসিরে কুরআন ও বাংলাদেশ ওলামা-মাশায়েখ পরিষদের আহ্বায়ক মুফতী হাবিবুর রহমান মিসবাহ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি সাংবাদিক শফকত হোসাইন চাটগামী, চট্টগ্রাম মহানগর সেক্রেটারি মুহাম্মদ আল-ইকবাল, উত্তর জেলা সেক্রেটারি মাওলানা সুলতানুল ইসলাম, আলহাজ ইউনুস মোল্লা, মু. সগির আহমদ চৌধুরী, আলহাজ শাহজাহান ভূঁইয়া, তরিকুল ইসলাম সরকার, ছাত্রনেতা মাঈনুদ্দীন, মাহমুদুল হাসান, জাওয়াদুল করীম, গাজী রায়হান প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই