মেইন ম্যেনু

হাসিনা-খালেদাকে লাগাম লাগাতে বললেন চরমোনাই পীর

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুজনকেই মুখে লাগাম লাগাতে বলেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর সৈয়দ রেজাউল করীম।

রোববার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন ঢাকা মহানগরী আয়োজিত ‘স্বাধীনতার ৪৩ বছর: প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন ঢাকা মহানগরীর সভাপতি মাওলানা ফখরুল ইসলাম।

বক্তব্য দেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশে ঢাকা মহানগরের আমির অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দীন প্রমুখ।

চরমোনাই পীর বলেন, “প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মুখের লাগাম লাগানেরা কথা বলছেন আবার বিএনপি চেয়ারপারসন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে লাগাম লাগানোর কথা বলছেন। আসলে উভয়নেত্রীকেই মুখের লাগাম লাগাতে হবে।”

তিনি বলেন, “স্বাধীনতার ৪৩ বছর অতিবাহিত হলেও দেশবাসী স্বাধীনতার সুফল পায়নি। স্বাধীনতার সুদীর্ঘ ৪৩ বছরে যারাই ক্ষমতায় ছিল তারাই শাসনের নামে দেশকে শোষণ করেছে। বিজয় হয়েছে একটি দেশের, ভূ-খণ্ডের, স্বাধীন হয়নি এদেশের মানুষ। ৭১-এ দেশের জনগণ যে আশা ও চেতনা নিয়ে জীবন দিয়ে বাংলাদেশের বিজয় ছিনিয়ে এনেছিল তা আজও বাস্তবায়ন হয়নি।”

রেজাউল করিম বলেন, “দেশের সংবিধানে আল্লাহর ওপর আস্থা ও বিশ্বাস থাকবে না, ইসলামী রাজনীতি থাকবে না, পর্দা থাকবে না, ধর্মীয় কার্যক্রম চালানো যাবে না। স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী মুক্তিযোদ্ধারা এমনটি চায়নি। নাস্তিক-মুরতাদ ও ইসলামবিদ্বেষীদের কার্যক্রম দেখলে মনে হয় এদেশ থেকে ইসলাম ধ্বংস করতেই যেন স্বাধীনতা যুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল।”






মন্তব্য চালু নেই