মেইন ম্যেনু

রাণীনগরে ৩য় দফা কালবৈশাখী ঝড়ে বাড়ীঘর, গাছপালা ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

নওগাঁর রাণীনগরে ৩য় দফা কালবৈশাখী ঝড়ে গতকাল বুধবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গাছপালাসহ বাড়িঘরের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। প্রথম ও ২য় দফা ঝড়ের আঘাতে ক্ষত না সারতেই আবারও আঘাত হানলো কালবৈশাখির এ-দানব।

বুধবার একদম প্রথম প্রহর ঘড়ির কাটা রাত ১২টা পার হয়ে প্রায় সাড়ে ১২টা। সারা দিন পরিশ্রম ও কর্ম ব্যবস্ততা সেরে যার যার মতো ঘুমাচ্ছিল। অনেকেই বুজতে পারেনি আসলে কি হচ্ছে। গো-গো বাতাসের শব্দ ঝর-মর করে উরে যাচ্ছে চালের টিন, মট,মট করে ভেঙ্গে পরছে গাছপালা। প্রায় পৌনে এক ঘন্টা ব্যাপি চলে এ তান্ডব। এতে রাণীনগর উপজেলার পূর্বাঞ্চলসহ বিভিন্ন এলাকায় আঘাতহানে কালবৈশাখি। মাঠ ভরা সোনালীধান পাত হয়ে মাটিতে পরে যায়। কালীগ্রাম কসবা পাড়ার দেলবর রহমান জানান, রাতে হঠাৎ করেই তার বাবার ঘরের টিনের পুরো চাল বাতাসে উড়ে যায়।

একই রকম ঘটেছে ওই পাড়ার রহিম উদ্দীনেরও । এছাড়া এলাকায় প্রায় শতাধিক বাড়ী-ঘরের চাল সম্পূর্ন উরে যায়। রাণীনগর-আবাদ পুকুর রাস্তারয় শতাধিক গাছ পালা ভেঙ্গে পরে রাস্তা ব্লক হয়ে যায় । গত ৪ এপ্রিল ও ১৮ এপ্রিল বয়ে যাওয়া ঝরে উপজেলার প্রায় আড়াই হাজার পরিবারের ব্যাপক ক্ষতি হয়।

এসব ক্ষতি কাটিয়ে উটতে না উটতেই গভীর রাতে আঘাত হানল কালবৈশাখির এদানব।

এব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেহেদি হাসান জানান, ঝড়ে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে বাড়ী-ঘর,গাছ পালা ও ধানের অনেক ক্ষতি হয়েছে। তবে কি পরিমানে ক্ষতি হয়েছে তা এখনো তালিকা করা হযনি।






মন্তব্য চালু নেই