মেইন ম্যেনু

মুখ খুললেন মনিকা লিওনস্কি

টানা ১৩ বছর পর আবারও মুখ খুললেন মনিকা লিওনস্কি। তবে এবার আর বিল ক্লিনটন বিরোধীদের পরামর্শে নয়। খোদ ফোর্বস ম্যাগাজিন আয়োজিত এক সম্মেলনে সবার সামনে তার অভিসার কাহিনী শুনালেন মনিকা। আর এবারই প্রথম বিল ক্লিনটনের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে খোলামেলা কথা বললেন তিনি। এর আগে ২০০০ সালের দিকে একটি মার্কিন পত্রিকায় নিজের সম্পর্ক নিয়ে সাফাই গেয়ে একটি প্রবন্ধ লিখেছিলেন।

গত সোমবার অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেয়ার শুরুতেই মনিকা বলেন, ‘আমার নাম মনিকা লিওনস্কি, যদিও আমাকে অনেকেই এই নামটি পাল্টে ফেলার উপদেশ দিয়েছিলেন।’ তবে এই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার আগে মনিকা তার টুইটারে ফোর্বসের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া নিয়ে খুব আনন্দ প্রকাশ করে বার্তা পোস্ট করেছিলেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘সম্মেলনে কথা বলার জন্য আমি উদগ্রীব’।

সম্মেলনে সত্যভাষণ করতে গিয়ে মনিকা বলেন, ‘আজ থেকে ১৬ বছর আগে আমি সদ্য কলেজ জীবন শেষ করে বের হয়েছিলাম। আর তখনই আমি আমার বসের প্রেমে পড়ি। কিন্তু ঘটনাচক্রে আমি সবার রোষের মুখোমুখি হই। তবে সাংবাদিকদের অপব্যাখ্যা আর মধ্যরাতের কমিকসে যেভাবে আমাকে দেখানো হয়েছে তা সত্যিই কষ্টকর। ১৯৯৮ সালের দিকে রাস্তায় বের হলে মানুষ আমাকে ‘ওই মহিলা’ অথবা ‘ওই মনিকা’ বলে ডাকাডাকি করতো।’

এসময় ফোর্বসের সাংবাদিকের করা এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই, সেসময় অনেক কিছুই ঘটেছে, তবে তা খুব ধীর গতিতে। এখনও গোটা বিশ্বে এই গল্পটা চালু আছে। আমার সম্পর্ক নিয়ে প্রথম রিপোর্ট করে ড্রাজ রিপোর্ট নামের একটি পত্রিকা।’

পত্রিকাতে প্রথম যখন বিল ক্লিনটনের সঙ্গে তার সম্পর্কের খবর আসে তখন খুব ভেঙে পড়েন মনিকা। তখন বেশ কয়েকবার তিনি আত্মহত্যা করার চেষ্টাও করেন বলেও জানান। আর সবকিছু পেছনে ফেলে তিনি এতগুলো বছর পর ফিরে আসতে চাইছেন নিজের ভুবনে। যে ভুবনে তিনি ইন্টারনেটের গুজবভিত্তিক সংবাদের বিরুদ্ধে সাংস্কৃতিক বিপ্লব করার চেষ্টা করবেন বলেও উল্লেখ করেন।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি যখন এমন একটা পরিস্থিতি থেকে ফিরে আসতে পেরেছি, তখন অন্য আরও অনেকেই আছেন যারা আমার মতো যন্ত্রণা ভোগ করছেন। আমি এখন তাদের পাশে দাঁড়াতে চাই। কেউ যেন আমার মতো কষ্ট না পায়।’

মনিকা লিওনস্কি



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই