মেইন ম্যেনু

ভারতে দাবদাহে নিহত ১০০০ ছাড়িয়েছে

ভারতে তীব্র দাবদাহের কবলে পড়ে নিহতের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়িয়েছে। কোনো কোনো রাজ্যে তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি পৌঁছেছে।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে বুধবার এ তথ্য জানানো হয়েছে। ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তেলাঙ্গানা ও অন্ধ্র প্রদেশে অধিকাংশ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এক সপ্তাহে এই দুই রাজ্যে দাবদাহে নিহত হয়েছে ১ হাজার ১১৮ জন।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গ ও ওডিশায় তীব্র গরমে সানস্ট্রোকে (সর্দিগর্মি) নিহত হয়েছে ২৪ জন। উচ্চ তাপমাত্রা আরো কয়েক দিন অব্যাহত থাকবে। ভারতের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, কোনো কোনো অঞ্চলের তাপমাত্রা কমে আসবে এবং দাবদাহের তীব্রতা প্রশমিত হবে।

হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত রোগীদের জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য উচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে হাসপাতালগুলোকে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া লোকজনকে ঘরের বাইরে না যেতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় তেলেঙ্গানা ও অন্ধ্র প্রদেশে এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি থেকে তাপপ্রবাহ শুরু হয়। তবে গত সপ্তাহ থেকে দাবদাহে মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে।

দাবদাহের প্রভাব সবচেয়ে মারাত্মক আকার ধারণ করেছে অন্ধ্র প্রদেশে। সোমবার এই রাজ্যে তাপমাত্রা ছিল ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অসহনীয় গরমে অন্ধ্র প্রদেশে মৃত্যু হয়েছে ৮৫২ জনের।

অন্ধ্র প্রদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের বিশেষ কমিশনার পি তুলসী রানী বলেন, ‘টেলিভিশনের মাধ্যমে দাবদাহ বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে জনগণকে। ক্যাপ ছাড়া বাইরে ঘোরাঘুরি করতে নিষেধ করা হয়েছে। এ ছাড়া পানি পানের বিষয়েও সতর্ক করা হয়েছে মানুষকে।’

তিনি আরো বলেন, সরকারি-বেসরকারি সংস্থাগুলোকে পর্যাপ্ত নিরাপদ পানীয় জলের ব্যবস্থা করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রতিবেশী তেলেঙ্গানা রাজ্যে নিহত হয়েছে ২৬৬ জন। এই রাজ্যে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বিরাজ করছে। তবে এই রাজ্যের লোকজন সরকারি সেবা সেভাবে পাচ্ছে না বলে অভিযোগ রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই