মেইন ম্যেনু

বাছুর যখন ভগবান!

আমরা একটা বাছুরের কথা বলছি। বাছুর মানে গাভীর বাচ্চা আর কি। তবে এটি কোনো সাধারণ বাছুর নয়। এর রয়েছে পাঁচটি মুখ। একাধিক মুখের কারণেই সে এখন রীতিমত সেলিব্রেটি বনে গেছে। ভারতের সাধারণ হিন্দুদের কাছে সে এখন শ্রীকৃষ্ণের প্রতিরূপ।

নন্দী নামের ওই বাছুরটির জন্ম ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের নারনাউল এলাকায়। অদ্ভুত ওই বাছুরটি তার মায়ের কাছে দুধ খেতে গেলে তার দশটি ঠোঁটই খুলে যায়। তবে সে তার দুটি মুখ দিয়েই কেবল দুধ পান করতে পারে। এভাবেই দিনে তিন বেলা দুধ খাচ্ছে অদ্ভূতদর্শন ওই বাছুরটি।

বাছুর1পাঁচ মুখের নন্দী ইতোমধ্যে উত্তর ভারতের সাধারণ মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। ওর মুখটাই যা ব্যতিক্রম। নইলে ঘাড় থেকে শরীরের অন্যান্য অংশ স্বাভাবিক বাছুরদের মতই। বিষ্মিত গ্রামবাসীর কাছে অদ্ভুত বাছুরটি এখন ভগবান শ্রীকৃষ্ণের প্রতিরূপ। এ কারণেই তারা তাকে ডাকে নন্দী। এটি শ্রীকৃষ্ণের সংক্ষিপ্ত নাম।

ব্যতিক্রমী এই বাছুরটিকে দেবতা হিসেবে পূজো করতে শুরু করেছে। ভারতের হিন্দু সংস্কৃতিতে গরুকে জীবনের প্রতীক মনে করা হয়। আর একটু ব্যাতিক্রম হলে তো কথাই নেই! তাই তো নন্দীকে ঘিরে সাধারণ মানুষের উৎসাহ উদ্দীপণা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ফলে নারনাউলের নন্দী এখন ভালোই জনপ্রিয়। ভক্তদের এই উন্মাদণা তাকে সেলিব্রেটি করে তুলেছে। অনেকেই তার পাশে হাঁটু গেড়ে বসে প্রার্থনা করে থাকে। কেউ কেউ তার ধারালো খুর স্পর্শ করতে পারলেই যেন ধন্য হয়ে যায়।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই