মেইন ম্যেনু

দুই কেন্দ্রে ভোটার ও পোলিং এজেন্ট সবাই সরকারি দলের

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের গূরুত্বপূর্ণ এলাকা আজিমপুর ও লালবাগ এলাকায় সরকারি দলের প্রার্থীদের সমর্থক ভোটার ও পোলিং এজেন্ট ছাড়া আর কাউকে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। এমনকি টেলিভিশনের ক্যামেরাম্যানদেরও কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

লালবাগের আজিমপুর গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্র ও ফরিদ উদ্দিন সিদ্দিকী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মঙ্গলবার সকালে ভোটগ্রহণের শুরু থেকেই এই চিত্র দেখা গেছে।

বাংলাভিশনের সিনিয়র রিপোর্টার জিয়াউল হক সুমন বলেন, ক্যামেরা নিয়ে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

২৬ নং ওয়ার্ডের এই দুই কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের ২ জন বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। এরা হলেন, হাসিবুর রহমান মানিক ও মতিউর রহমান জামাল। আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ওসমান গণি।

সকাল থেকে এই এলাকায় দেখা গেছে, সাধারণ ভোটারদের উপস্থিতি নেই বললেই চলে। যারা ভোট কেন্দ্রের বাইরে রয়েছেন তারা সবাই সরকারি দলের নেতাকর্মী। যারা ভোট দিতে এসেছেন তাদের বেশিরভাগই সরকার দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থক।

আজিমপুর গার্লস স্তুল এন্ড কলেজের ২ নম্বর কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মোহাম্মদ আলাউদ্দিন বলেন, সাড়ে ৮ টা পর্যন্ত ৫ জন পোলিং এজেন্ট কার্ড নিয়েছেন। এরা সবাই ইলিশ প্রতীকের। যদিও এই কেন্দ্রে ৫ টি বুথে ২৮ জন প্রার্থীর ১৪০ জন পোলিং এজেন্ট থাকার কথা।’ তিনি আরও বলেন, পোলিং এজেন্ট কেন নেই জানি না।’ এই কেন্দ্রে মোট ভোটার ২৩৪৭ জন।

‘ইলিশ ছাড়া অন্য প্রতীকের কোনো এজেন্ট কেন নাই,’— এ প্রশ্নের জবাবে ফরিদ উদ্দিন সিদ্দিকী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রিসাইডিং অফিসার অনিমেষ ঘোষ দ্য রিপোর্টকে বলেন, ভাই, পোলিং এজেন্ট কেন নেই সেটা তো আর আমি জানি না।’






মন্তব্য চালু নেই