মেইন ম্যেনু

কান কেটে প্রতিবাদ

কানের লতি কেটে ভিন্নধর্মী এক প্রতিবাদ করেছেন রাশিয়ার বিতর্কিত শিল্পী পেইতর পাভলেনস্কি। রোববার নিজ বাসভবনের ছাদে জনগণের সামনে নগ্ন অবস্থায় ছুরি দিয়ে নিজের কানের লতি কেটে তিনি সরকারের নীতিমালার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেন।

এক বিবৃতিতে শিল্পী তার ফেসবুক পেইজে জানান, সরকারের রাজনৈতিক অদূরদর্শিতা এবং রাজনৈতিক কর্মীদের প্রতি সরকারের বিরুপ আচরণের প্রতিবাদে তিনি একাজ করেছেন।

রাশিয়ার স্থানীয় গণমাধ্যম আরটি ডটকম জানায়, পাভলেনস্কি ঠান্ডায় জমে যাচ্ছিল। এমতাবস্থায় তিনি তার বাসার ছাদের কার্নিশে বসে নিজের কানের লতি কেটে ফেলেন। পরবর্তীতে পুলিশ তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যায়।

সম্প্রতি রাশিয়ার সরকার দেশটির রাজনৈতিক ভিন্নমতাবলম্বীদের মানসিক রোগি স্বাব্যস্ত করে হাসপাতালে পরীক্ষা করার নির্দেশ জারি করে। এই নির্দেশের বিপরীতে দেশটির অনেকেই প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। যার ধারাবাহিকতায় পাভলেনস্কি এই কাজ করেন।

তবে পাভেলেনস্কির জন্য এটাই প্রথম এধরণের প্রতিবাদ নয়। এর আগেও তিনি দুবার এধরণের ভিন্নধর্মী প্রতিবাদ করেছিলেন। প্রথমবার ২০১২ সালে সেন্ট পিটার্সবার্গের একটি সরকারি ভবনের সামনে তিনি নগ্ন হয়ে কাটাতারের মধ্যে শুয়ে পরেছিলেন। এরপর রেড স্কয়্যারে নিজের পায়ের আঙুলের নখ উপড়ে ফেলেও প্রতিবাদ করেছিলেন।

কান কেটে2



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই