মেইন ম্যেনু

ইরাকে হামলার প্রশ্নে ভোট দেবেন ব্রিটিশ এমপিরা

ইরাকে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে চলা মার্কিন নেতৃত্বাধীন বিমান হামলায় ব্রিটেন অংশ নেবে কি-না তা নিয়ে ভোট হবে আজ হাউজ অব কমন্সে।

রক্ষণশীল টোরি, বিরোধী লেবার পার্টি এবং লিবারেল ডেমোক্রেটের এমপিরা ভোটে অংশ নেবেন।

ব্রিটিশ সরকার বলছে, ইরাকের পক্ষ থেকেই আইএসের ওপর হামলার ব্যাপারে অনুরোধ এসেছে। তাই হামলার বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপনের সুযোগ নেই।

এক সাক্ষাৎকারে প্রতিরক্ষামন্ত্রী মাইকেল ফ্যালন বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে এই হামলা চলবে। তা দুই-তিন বছরও হতে পারে।

সাম্প্রতিক মাসগুলোয় আইএস ইরাক ও সিরিয়ার একটি বড় অংশ দখল করে সেখানে খেলাফত প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছে।

ইরাকে হামলায় অংশ নেয়ার কথা বললেও সিরিয়ায় হামলায় জড়াতে চায় না ক্যামেরন সরকার।

লন্ডনে ইতোমধ্যেই যুদ্ধবিরোধী মিছিল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রায় ২৫০ ব্রিটিশ নাগরিক ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে যুদ্ধবিরোধী সমাবেশ করেন।

লেবার পার্টির এমপি ডায়ানা অ্যাবট, জেরিমি করবিন এবং জন ম্যাকডোনেল প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনকে এ বিষয়ে এক চিঠি দিয়েছেন। তারা চিঠিতে লিখেছেন, ‘বোমাবর্ষণ ইরাকের পরিস্থিতিকে আরো জটিল করবে। তাই আমরা সরকারের কাছে আহ্বান জানাই ইরাক ও সিরিয়ায় ফের কোনো বিমান হামলা না চালানোর জন্য।’

চার সপ্তাহের বিরতির পর ব্রিটেনের হাইজ অব কমন্সের অধিবেশন বসছে আজ। প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন স্থানীয় সময় সাড়ে ১০টায় এ সংক্রান্ত বিতর্ক উদ্বোধন করবেন।

সরকার ইরাকে হামলার ব্যাপারে কোনো আইন পাস করতে চায় না। ২০০৩ সালে ইরাকে যে কায়দায় হামলা চালানো হয়েছিল এবারও সেভাবেই হামলা চালাতে চায়।






মন্তব্য চালু নেই