মেইন ম্যেনু

৪ ঘণ্টায় পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে (ভিডিও)

মাত্র চার ঘণ্টায় পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে ভ্রমণ করা সম্ভব! এমন রকেট ইঞ্জিন এখন হাতের মুঠোয়। ব্রিটিশ বিজ্ঞানীরা এমন ইঞ্জিন তৈরি করেছেন। আদর করে নাম দিয়েছেন সাবের (Sabre)। যার অর্থ অত্যন্ত ধারালো তরবারি। ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সিও এখন এই ইঞ্জিন ব্যবহার করার চিন্তাভাবনা করছে।

সাবের রকেট ইঞ্জিনটি তৈরি করেছে ব্রিটিশ কোম্পানি রিঅ্যাকশন ইঞ্জিনস।

যাত্রীবাহী বিমান বা মহাকাশযানে এ ইঞ্জিন ব্যবহার করা গেলে সেটির গতি হবে শব্দের পাঁচ গুণ। অর্থাৎ সেটা হবে হাইপারসনিক আকাশযান। যেখানে শব্দের গতি সেকেন্ডে ৩৩০ মিটার।

রিঅ্যাকশন ইঞ্জিনস মূলত সেটিকে স্কাইলন (Skylon) নামে একটি মহাকাশযানে ব্যবহার করার কথা ভাবছে। আর এ ইঞ্জিনচালিত যাত্রীবাহী বিমানের নাম দেয়া হয়েছে ল্যাপক্যাট অ্যা২ (Lapcat A2)। এই বিমানে তিনশ আরোহী বহন করা যাবে। আরোহীরা পাবেন সুপারফাস্ট গতির ভ্রমণ অভিজ্ঞতা।

পরীক্ষামূলক ব্যবহারে দেখা গেছে, এই ইঞ্জিনে মহাকাশযানের উড্ডয়ন খরচ ৯৫ শতাংশ কমানো সম্ভব। ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি ২০২০ সালের মধ্যে সাবের ইঞ্জিন চালিত রকেট উড্ডয়নের প্রকল্প নিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই