মেইন ম্যেনু

১০০ বছরের মধ্যে ধ্বংস হবে জাপান?

আগামী ১০০ বছরের মধ্যে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে  জাপান। যেকোনো সময় আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাত ও ভূমিকম্পের কারণে দেশটির ১২ কোটি ৭০ লাখ মানুষ মারা যেতে পারে। এতে পৃথবীর বুকে এক বিরানভূমিতে পরিণত হতে পারে দেশটি। এমন ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন খোদ জাপানেরই বিজ্ঞানীরা।

দেশটির কোবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা বলেছেন, ‘এমন ভবিষ্যদ্বাণী করা ‘‘অত্যুক্তি’’ হবে না যে, প্রাকৃতি দুর্যোগে পৃথিবীর বুক থেকে মুছে যেতে পারে জাপানের নাম।’

সম্প্রতি দেশটির কাইশু দ্বীপের আগ্নেয়গিরির উদগিরণের ওপর গবেষণা চালিয়ে কোবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা এমন ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। কাইশু দ্বীপে গত ১ লাখ ২০ বছরে সাতটি ভয়াবহ আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

জাপানের দক্ষিণাঞ্চলের ওই দ্বীপে আবারও কোনো অগ্নুৎপাতের ঘটনা ঘটলে তাতে ৭০ লাখ মানুষ মারা যেতে পারে। এর প্রভাবে হনশু দ্বীপেও ব্যাপক প্রাণহানি ঘটতে পারে। এ ছাড়া বিষাক্ত গ্যাস বাতাসে মিশে দেশটির অন্য অঞ্চলের বাকি ১২ কোটি মানুষের জীবনকে ‘আশাহীন’ করতে তুলতে পারে।

এদিকে গবেষকদলের দুই অধ্যাপক ইয়োশিইউকি টাটসুমি ও কেইকো সুজুকি বলেছেন, আগামী ১০০ বছরের মধ্যে এমন ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা প্রায় এক শতাংশ। শতাংশের হিসাবে ছোট হলেও এ সম্ভবনাকে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ ১৯৯৫ সালে কোবে শহরে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ ভূমিকম্পের আগের দিনও এর সম্ভাবনা ছিল এক শতাংশ। এতে ৬ হাজার ৪০০ মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল।

এ ছাড়া সেপ্টেম্বরে জাপানের মাউন্ট ওন্টাকে দ্বীপে আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণ ঘটে। এতে নারী-শিশুসহ ৫১ জাপানি মারা যায়।

তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল।






মন্তব্য চালু নেই