মেইন ম্যেনু

হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছে মালালার

নারীশিক্ষার জন্য সংগ্রাম করে আসছেন ১৭ বছর বয়সি পাকিস্তানি কিশোরী মালালা ইউসুফজাই। এ জন্য দেশটির তালেবানের রোষানলেও পড়েছিলেন তিনি। জঙ্গিদের গুলিতে মারাত্মক আহত হয়েছিলেন মালালা। শিক্ষা প্রসারের অবদানস্বরূপ এ বছর পেয়েছেন শান্তিতে নোবেল পুরস্কার। পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে শিক্ষার জন্য কঠোর সংগ্রাম করার ঘোষণা দেন মালালা। কিন্তু নোবেল শান্তি পুরস্কার গ্রহণের এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই পাকিস্তানে এক স্কুলে ঘটে গেল বর্বর এক জঙ্গি হামলার ঘটনা। এ ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে মালালা বলেছেন তার হৃদয় ভেঙে গেছে। সেখান থেকে ঝরছে রক্ত। মঙ্গলবার পেশোয়ারের সেনা পরিচালিত এক স্কুলে জঙ্গি হামলায় ১৪১ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের ১৩২ জন শিশু।

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও শোক প্রকাশ করেন দেশটির সবচেয়ে কম বয়সি নোবেলজয়ী কিশোরী মালালা ইউসুফজাই। মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মালালা বলেন, ‘এই ঠাণ্ডা মাথার হত্যাকাণ্ড আমার হৃদয় ভেঙে দিয়েছে। হৃদয়ে রক্ত ঝরছে। কেন এই ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটল, তা এখনো আমাদের কাছে অজ্ঞাত। স্কুলে শিশুদের হত্যার মতো ভয়াবহ ঘটনা আর হতে পারে না।’ মালালা আরো বলেন, ‘নৃশংস এবং কাপুরুষোচিত হামলার নিন্দা জানাই এবং পরিস্থিতি সামাল দিতে সরকার ও সশস্ত্র বাহিনীর পাশে দাঁড়াতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানাই।’ তথ্যসূত্র : বিবিসি।






মন্তব্য চালু নেই