মেইন ম্যেনু

এবোলা পরিস্থিতির অবনতি

সোমালিয়া ছাড়ছে সিয়েরা লিওনের সেনারা

এবোলার ভয়ে সোমালিয়ায় অবস্থানরত নিজেদের সেনাবাহিনীকে ফিরিয়ে আনছে সিয়েরালিওন। আল কায়েদার শাখা সংগঠন আল শাবাবের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে, সিয়েরা লিওনের সেনাবাহিনীর একাংশ প্রতিবেশী রাষ্ট্র সোমালিয়ায় কাজ করে যাচ্ছিল। আফ্রিকান ইউনিয়নের সোমালিয়া প্রতিনিধি মামান সিদো জানান, ‘তাদের চলে যাওয়া উচিৎ। আমরা চেয়েছিলাম তারা থাকুক, কিন্তু (এবোলা) পরিস্থিতি ক্রমেই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে।’

২০১৩ সালে আল কায়েদা সমর্থিত সশস্ত্র সংগঠন আল শাবাবের সঙ্গে লড়াইয়ের জন্য সিয়েরা লিওন ১২ মাসের জন্য ৮৫০ সদস্যের এক সেনাদল পাঠিয়েছিল। সেনাদলের কার্যক্রম শুরু হতে কিছুটা বিলম্ব হওয়ায় সোমালিয়ায় তাদের অবস্থান বজায় ছিল। ইতোমধ্যে, একজন সেনা এবোলা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পড়লে, সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আনতে বাধ্য হন নীতিনির্ধারকেরা।

সোমালিয়ার রাষ্ট্রপতির উপস্থিতিতে, সিয়েরা লিওনের বিদায়ী সেনাদের জন্য এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। রাষ্ট্রপতি হাসান শেখ মাহমুদ বলেন, ‘এটা এমন এক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে যাতে সিয়েরা লিওনের কোন হাত নেই, আফ্রিকান ইউনিয়নের কোন হাত নেই, হাত নেই স্বয়ং সোমালিয়ার। অদ্ভুত কঠিন এক সময়ে তারা এ দেশে পা রেখেছিলেন। আমরা আন্তরিকভাবে এবং কৃতজ্ঞচিত্তে তাদের অবদানের কথা স্বীকার করছি। এও স্বীকার করছি, সোমালিয়ার অবস্থা এখন আগের চেয়ে অনেক ভালো।

সোমালিয়ায় নাগরিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্যে আফ্রিকান ইউনিয়ন কেনিয়া, ইথিওপিয়া, জিবুতি, উগান্ডা, বুরুন্ডি, নাইজেরিয়া ও ঘানা থেকে প্রায় ২২ হাজার সেনা মোতায়েন করেছিল। বর্তমানে তাদের প্রতিস্থাপক সেনাদল খো৭জা হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই