মেইন ম্যেনু

সন্ত্রাস ইস্যুতে পাকিস্তানের পদক্ষেপের প্রশংসা ভারতের! কিন্তু কেন?

কিছুদিন আগেই লস্কর-ই-তইবা নেতা হাফিজ সৈইদকে গৃহবন্দি করেছিল পাকিস্তান। জানানো হয়েছিল অনুমতি ছাড়া এখন আর দেশ ছাড়তে পারবে না সইদ। পাকিস্তানের এই উদ্যোগকেই এবার সাধুবাদ জানাল ভারত।

সোমবার ভারতের বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, হাফিজ সৈইদকে গৃহবন্দি করার ফলে আন্তর্জাতিক স্তরে সন্ত্রাস নিয়ে এই প্রথম কোনও ভাল পদক্ষেপ করল পাকিস্তান। ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র বিকাশ স্বরুপ বলেন, সৈয়দকে বিচার করার এটাই প্রথম ধাপ। সৈইদ এবং তার সংগঠনের বিরুদ্ধে আরও কড়া পদক্ষেপ করা উচিৎ।

কিছুদিন আগেই বিকাশ স্বরূপ সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান, মুম্বই হামলার মূল মাথা এই হাফিজ সৈইদ। পাকিস্তানে বসেই হাফিজ মুম্বই হামলার যাবতীয় ছক কষেছিল। এমনকী পাকিস্তানের হাতে সন্ত্রাস দমনের জন্য যাবতীয় তথ্য প্রমাণ রয়েছে বলেও জানান তিনি। একইসঙ্গে সন্ত্রাসবাদ দমনের জন্য আন্তর্জাতিক স্তর থেকে চাপ আসছিল পাকিস্তানের উপর।

এরপরেই গত ৩০ জানুয়ারি হাফিজ সৈইদ-সহ তার কয়েক জন সহযোগীকে গৃহবন্দি করার নির্দেশ দেওয়া হয়। পাকিস্তানে এদের অবাধ চলাফেরা এবং গণমাধ্যমের সামনে আসার ক্ষেত্রেও স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে।

যদিও হাফিজ সৈইদ যে দলের মাথা ছিলেন, সেই জামাত-উদ-দাওয়া-কে এখনও নিষিদ্ধ ঘোষণা করেনি পাকিস্তান। তবে এই দলটির কার্যকলাপের দিকে নজর রাখা হচ্ছে। একইসঙ্গে অন্যান্য জামাত নেতাদের ক্ষেত্রেও বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই