মেইন ম্যেনু

লিবিয়া থেকে ছিনতাইকৃত বিমানের যাত্রীরা মুক্ত, ক্রু’রা জিম্মি

লিবিয়া থেকে ছিনতাই করে মালটায় নিয়ে যাওয়া অভ্যন্তরীণ রুটের বিমানটি থেকে নারী ও শিশুসহ যাত্রীদের ছেড়ে দিয়েছে ছিনতাইকারীরা। তবে দাবি আদায়ে তারা ক্রুদের জিম্মি করে রেখেছে।

এছাড়া দুই ছিনতাইকারী নিজেদেরকে নিহত লিবীয় নেতা মোয়াম্মার গাদ্দাফির সমর্থক দাবি করেছেন।

লিবিয়ার রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন আফ্রিকিয়াহ এয়ারওয়েজের এয়ারবাস-এ৩২০ বিমানটিতে ২৮ জন নারী এবং এক শিশুসহ ১১৭ জন যাত্রী এবং সাতজন ক্রু ছিলেন।

নারী ও শিশুসহ সব যাত্রীদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা। তবে দাবি পূরণে তারা সাত ক্রু-কে জিম্মি করে রেখেছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, শুক্রবার লিবিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সেবহা শহর থেকে বিমানটি রাজধানী ত্রিপোলি যাচ্ছিল। পথে দুজন ছিনতাইকারী বিমানটি উড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে এটি মাল্টা অবতরণ করতে পাইলটকে বাধ্য করেন।

ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলবর্তী মাল্টা লিবিয়ার উত্তর উপকূল থেকে ৫০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

মাল্টার প্রধানমন্ত্রী যোসেফ মাস্কাট টুইটারে বলেছেন, লিবিয়ার একটি অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট ছিনতাই করে মাল্টায় নিয়ে আসা হয়েছে। জরুরি অভিযানের প্রস্তুতি চলছে।

মালটার সংবাদমাধ্যম টাইমস অব মালটা জানিয়েছে, বিমানটি ছিনতাইয়ে জড়িত দুই ব্যক্তি নিজেদের নিহত লিবীয় নেতা গাদ্দাফি সমর্থক ‘আল ফাতাহ আল গাদিদা’ দলের সদস্য বলে পরিচয় দিয়েছেন। তাদের কাছে হ্যান্ড গ্রেনেড আছে বলেও তারা দাবি করে।






মন্তব্য চালু নেই