মেইন ম্যেনু

যশোরের খবর (০৮/০৭/১৪)

## যশোরে পেশাদার ছিনতাইকারী আটক
যশোর অফিস: যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে পেশাদার ছিনতাইকারী সানিকে সোমবার বিকালে নাজিরশংকরপুর এলাকার বিল থেকে আটক করেছে। সানি নাজরশংকরপুর এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে।
পুলিশ জানায়, যশোর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সামনে যত ছিনতাই হয় তার সিংহভাগের সাথে সানি জড়িত। তার বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের বহু অভিযোগ আছে।

## যশোরে ট্রাক শ্রমিকে পিটিয়ে হত্যা
যশোর অফিস: যশোর শহরের বকচর জোড়া মন্দির এলাকার ফজলু মিস্ত্রির গ্যারেজ থেকে সোমবার বিকালে রবিউল ইসলাম রুবেল নামে এক ট্রাক শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে যশোর সদরের সিতারামপুর গ্রামের মনিরুল ইসলামের ছেলে। স্থানীয়রা বলছে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তবে, বিষয়টি নিয়ে পুলিশ নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেনি।
নিহত রুবেলের চাচা সাংবাদিক এমএ জলিল জানান, তার ভাইপো সকালে বাড়ি থেকে শহরে আসেন। বকচর এলাকার একটি গ্যারেজে ট্রাক মেরামতের কাজ করাতে আসেন। বিকেলে পুলিশ রুবেলের লাশ উদ্ধার করে বলে তারা জানতে পারেন।
যশোর কোতয়ালি থানার ওসি সহিদুল ইসলাম জানান, ট্রাকের নীচ থেকে রবিউলের লাশ উদ্ধার করা হয়। কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে তা তিনি নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি। তবে এলাকাবাসী বলেছে নিহতের শরীরে আঘাত রয়েছে। তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হতে পারে।

## যশোরে আদালত চত্বর থেকে ব্যবসায়ী অপহরণের আড়াই ঘন্টা পর উদ্ধার
যশোর অফিস: যশোরে আদালত চত্বর থেকে সোমবার ব্যবসায়ীকে অপহরণ করা হয়। আড়াই ঘন্টা পর তাকে উদ্ধার করে পুলিশ। অপহৃত যুবকের নাম আব্দুস সোবহান (৩০)। তিনি বেনাপোলের বড় আঁচড়া গ্রামের ওমর আলাীর ছেলে। এ ঘটনায় দু’জনকে আটক করা হয়েছে।
অপহৃত আব্দুস সোবহান (৩০) জানান, শহরের আরএন রোড এলাকার জনি নামে এক ব্যবসায়ীর সাথে তার যৌথভাবে নিলাম ব্যবসা আছে। তার কাছে জনি ৮০ হাজার টাকা পেতেন। দু’ কিস্তিতে সোবহান ৫৬ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। বাকি ২৪ হাজার টাকার জন্য জনি তাকে চাপ দিতে থাকে।
তিনি বলেছেন, সোমবার একটি মামলায় হাজিরা দিতে যশোর চিফ জুডিশিয়াল আদালতে আসেন। আদালতের কাজ শেষে বাইরে বের হলে বেলা ১১ টার দিকে জনি তার কয়েক সহযোগি নিয়ে একটি মাইক্রোবাসে করে তাকে অস্ত্রে মুখে অপহরণ করে নিয়ে যায়। তাকে জনির আরএন রোডস্থ অফিসে আটকে রেখে বেদম মারপিট করা হয়। পরে তার কাছে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে জনি। মোবাইল ফোনে সংবাদ পেয়ে সোবহানের স্ত্রী শাহানা বেগম আরএন রোডে আসেন এবং পুলিশে সংবাদ দেন। কোতোয়ালি থানার এসআই মিজানুর রহমান সংবাদ পেয়ে জনির ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যান এবং দেড়টার দিকে সোবহানকে উদ্ধার করেন। এ সময় তার দু’ সহযোগিকে আটক করেন। এরা হলো, একই এলাকার মোজাফ্ফর হোসেনের ছেলে মনিরুজ্জামান এবং আদম আলীর ছেলে ওমর ফারুক। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে জনি পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে এসআই মিজানুর রহমান বলেছেন, একজন ব্যবসায়ীকে আপহরণের সংবাদ পেয়ে জনির ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে তাকে উদ্ধার করা হয়। তবে অপহৃত সোবাহান ও জনির মধ্যে আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত বিরোধ আছে।

## যশোরে ৫ বোমা ও মাদকসহ আটক ৩
যশোর অফিস: পুলিশ পৃথক অভিযানে যশোরের দুটি স্থান থেকে বোমা, ইয়াবা ও ফেনসিডিলসহ তিনজনকে আটক করেছে। রোববার গভীররাতে তাদের আটক ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।
চাঁচড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ জামাল উদ্দিন জানান, রাত তিনটার দিকে যশোর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরার সময় মিজানুর রহমান জুুযেল ও সোহের রানা নামে দু’যুবককে আটক করা হয়। ওই সময় তাদের কাছ থেকে ৫টি বোমা ও এক শ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। মিজানুর রহমান জুয়েল রামনগর খাঁ পাড়ার বাবু শেখের ছেলে এবং সোহেল রানা মুড়লী খাঁ পাড়ার কামাল হোসেনের ছেলে। অপরদিকে, শহরের চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকা থেকে ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করা হয় শহিদুল ইসলাম পটলকে। কোতোয়ালি থানার এসআই শোয়েব জানান, রাত ১২টার দিকে পটলকে ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ তাকে আটক করা হয়। ধৃত পটল শহরতলীর আরবপুর এলাকার হোসেন সরদারের ছেলে।

## যশোরে স্ত্রীকে পাচারের অভিযোগে মামলা স্বামী শাশুড়িসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে মামলা
যশোর অফিস: স্ত্রী নার্গিস বেগমকে ভারতের মুম্বাই শহরের একটি পতিতালয়ে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগে তার স্বামীসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে যশোরের কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করেছেন। তিনি শহরের রেলগেট এলাকার নূর ইসলামের মেয়ে। মামলার আসামিরা হলো মনিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা গ্রামের সদর আলীর দু’ছেলে সাইদুল ইসলাম ও মফিজুর রহমান ওরফে মফি, স্ত্রী আবিরণনেছা, আব্দুর রাজ্জাক মোড়লের ছেলে সিরাজুল ইসলাম এবং সাইদুল ইসলামের স্ত্রী ফিরোজা বেগম।
পুলিশ জানায়, সাইদুল ইসলাম নার্গিস বেগমের স্বামী। তাকে প্রায় ঢাকায় নিয়ে যেয়ে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখাতো। গত ১৯ মে বিকেলে আসামিদের সহযোগিতায় নার্গিস বেগমকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলে ভারতের মুম্বাই শহরে নিয়ে যায়। এবং সেখানকার একটি পতিতালয়ে বিক্রি করে দেয়। পরে সেখানে অবস্থান করা সুমী নামে এক বাংলাদেশি মেয়ের সহযোগিতায় তিনি দেশে ফিরে আসেন।
তিনি আরো বলেছেন, দেশে ফিরে তিনি কোতোয়ালি থানায় গিয়ে মামলা করতে যান। কিন্তু পুলিশ মামলা নেয়নি। পরে তিনি আদালতের মানব পাচার প্রতিরোধ ট্রাইব্যুনালে অভিযোগ দেন। ট্রাইব্যুনালের নিদের্শ অনুযায়ী থানা পুলিশ গতকাল সোমবার থানায় মামলাটি রেকর্ড করেন।
তবে রেলগেট এলাকার একটি সূত্র জানিয়েছেন, নার্গিস একজন চিহ্নিত যৌনকর্মী। সে ভারতের মুম্বাই শহরের বিভিন্ন পতিতালয়ে গিয়ে দেহ ব্যবসা করে থাকে। যশোর শহরের রেলগেট এলাকায় বিভিন্ন বয়সের মেয়েদের নিয়ে সে দেহ ব্যবসা করে থাকে বলে জানা গেছে। তার দায়ের করা পাচার মামলাটি মিথ্যা বলে দাবি করেছেন ওই এলাকার মানুষ।

## সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের নির্বাহী কমিটির সভায় উদ্বেগ প্রকাশ
যশোর অফিস: সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোর'(’রজইউজে) কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১১ টায় সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন নব নির্বাচিত কমিটির সভাপতি নূর ইসলাম। প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আনোয়ারুল করিব নান্টু। এছাড়া অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাব যশোরের সম্পাদক ও সংগঠনের সাবেক সেক্রেটারি আহসান কবীর। সভা পরিচালনা করেন সেক্রেটারি এম. আইউব। উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি মোস্তফা রুহুল কুদ্দুস, যুগ্ম সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুন্না, দপ্তর সম্পাদক তরিকুল ইসলাম তারেক, কোষাধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম মিলন, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এম আর খান মিলন ও নির্বাহী সদস্য ওয়াহিদুজ্জামান মিলন, গ্রামের কাগজের ইউনিট চীপ দেওয়ান মোর্শেদ আলম। সভায় গঠনতন্ত্র সংশোধনসহ বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এছাড়া আগামী ১৬ জুলাই শহীদ সাংবাদিক শামসুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল ও মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। ওই দিন সকাল ১০টায় পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং বেলা ১১টায় প্রেসক্লাবে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। ইউনিয়নের সকল সদস্যসহ শুভাকাংক্ষীদের যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য অনুুরোধ করেছেন সভাপতি নূর ইসলাম ও সেক্রেটারি এম. আইউব
্এদিকে, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি শাহেদ চৌধুরীকে অপহরণের চেষ্টায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের (জেইউজে) সভাপতি নূর ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এম. আইউব। এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ এই ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে আটক ও শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। একই সাথে সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তারা।

## যশোর-মাগুরা সড়কে গণডাকাতি
যশোর অফিস: যশোর-মাগুরা সড়কে রোববার রাত ২টায় পরিবহন ও ট্রাকে গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা নগদ ৩ লাখ টাকাসহ কয়েক লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে।
রবিবার রাতে ঢাকা থেকে যশোর-খুলনার উদ্যেশ্যে ছেড়ে আসে পরিবহন ও ট্রাক। ট্রাকগুলো যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার গাইদঘাট স্কুল বাড়ি কাছে পৌছালে একদল ডাকাত তাদের গতিরোধ করে। পরে ১০ থেকে ১২টি ট্রাক থামিয়ে নগদ ৩ লাখ টাকাসহ ৪/৫টি মোবাইল নিয়ে নেয়। পরে সেখানে কয়েক পরিবহন পৌছে জোরে হর্ণ দেয়। হর্ণেও আওয়াজে সেখানে পুলিশ জোড়ো হয়। পরে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। তবে এ ব্যাপারে বঘারপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাউয়ূম সরকার জানান, যশোর-মাগুরা সড়কে কোন ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি। পুলিশের উপস্থিতির বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাতে পুলিশ ডিউটিতে ছিল।

## যশোরে অগ্রাণীর ব্যাংকের ঝুমঝুম শাখায় চুরি
যশোর অফিস: যশোরে বিজিবি ক্যাম্পের সামেন অগ্রণী ব্যাংকের ঝুমঝুমপুর শাখা অফিসে চুরি হয়েছে। চোরেরা নগদ টাকা নিতে না পারলেও কম্পিউটারসহ অন্যান্য সামগ্রী নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে। রবিবার রাতে চোরেরা ব্যাংকের নিচতলার গ্রিল কেটে ব্যাংকে ঢুকে ওই সব মালামাল নিয়ে যায়।
অগ্রাণী ব্যাংকের জোনাল শাখার ডিজিএম লুৎফর রহমান জানান, ঝুমঝুমপুরে তাদের জোনাল শাখা। এই জোনাল শাখার নিচে ঝুমঝুমপুর শাখা অবস্থিত। রোববার রাতে চোরেরা কোন এক সময় নিচের গ্রিল কেটে প্রবেশ করে। তারা ব্যাংকের কম্পিউটারের ২টি মনিটর, একটি ইউপিএস নিয়ে গেছে। তিনি আরও জানান, চোরেরা ব্যাংকের ভোল্ট ভাঙ্গার চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়েছে। ফলে তারা কোন টাকা পয়সা নিতে পারেনি। তিনি বলেন, এদিন ব্যাংকে ৪ লাখ ৪৯ হাজার টাকা ৩৭ টাকা ৫৪ পয়সা রক্ষিত ছিল। তিনি জানান, ব্যাংকে ৮ লাখ টাকার নিচে থাকার কারণে এখানে কোন গার্ড নেই। ব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজার জাহিদুল ইসলাম জানান, ব্যাংকের ম্যানেজার মুন্সি মোজাম্মেল হোসেন অসুস্থ্যতার কারণে ছুটিতে রয়েছেন।
তিনি জানান, সকালে ব্যাংকে এসে দেখতে পান ব্যাংকের গ্রিলকাটা কে বা কারা (চোরেরা) অফিসে প্রবেশ করেছে। তারা অফিসের বিভিন্ন কম্পিউটারসহ কাগজপত্র তছনছ করেছে। এরপর অফিস ঘুরে চুরির বিষয়টি নিশ্চিত হন।
তিনি আরও জানান, বর্তমানে রোজার জন্য ব্যাংকের অফিস আওয়ার সকাল ৯টা থেকে ৪টা পর্যন্ত। রবিবার রাতে চোরেরা ব্যাংকের কাচের গ্লাস ভেঙ্গে প্রবেশ করে। এরপর কম্পিউটারসহ অন্যান্য মালামাল নিয়ে গেছে। এতে প্রায় অর্ধলাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
তিনি বলেন, এই শাখায় এর আগেও দু’বার চুরির ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন ডিজিএম লুৎফর রহমান।
ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার (আইটি) মনোয়ার হোসেন জানান, সকালে ব্যাংকে এসে দেখতে পারেন শাখার ৫টি কম্পিউটারগুলো সব খুলে তছনছ করেছে। এছাড়া ভোল্ট ভেঙ্গে টাকা নেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। তবে টাকা পয়সার কোন নিতে পারেনি। তিনি জানান, চোরেরা একটি শাবল, একটি স্কুল ব্যাগ, একটি প্লায়ার ও দুটি চাবি ফেলে রেখে গেছে। পুলিশ এসব মালামাল মামলার আলামত হিসেবে জব্দ করে নিয়ে গেছে।
যশোরের সহকারী পুলিশ সুপার (মুখপাত্র) রেশমা শারমিন বিষয়টি জেনে জানাবেন বলে জানান। তবে এক ঘন্টা পার হলেও তিনি আর কোন কিছু জানাননি। কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সহিদুল ইসলাম চুরির ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তেমন বড় ধরণের কোন চুরি না। চোরেরা ব্যাংকে গ্রিল কেটে প্রবেশ করে। তারা দুটি কম্পিউটারসহ অল্প কিছু মালামাল নিয়ে গেছে।

## যশোর-খুলনা মহাসড়ক সংস্কারে ১০ দিনের আল্টিমেটাম
যশোর অফিস: আগামী ১০ দিনের মধ্যে যশোর খুলনা মহাসড়ক সংস্কারে চলাচলের উপযোগী না হলে যশোর-খুলনা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যশোর জেলা সড়ক পরিবহন সমিতি। সোমবার সকাল সাড়ে১১টায় যশোর জেলা সড়ক পরিবহন সমিতির এক বিশেষ জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সমিতির সহ সভাপতি পবিত্র কাপুড়িয়ার সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন- সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর, পরিবহন সংস্থা শ্রমিক সমিতির সভাপতি আজিজুল আলম মিন্টু, সড়ক পরিবহন সমিতির নেতা অসীম কুন্ডু আবুল কাশেম, মোহাম্মদ আলী, সাঈদ হোসেন, সুবেদার আনোয়ার হোসেন, মোহন লাল কুন্ড ও তরুণ কুন্ড প্রমুখ। সভায় যশোর জেলা সড়ক পরিবহন সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর জানান, যশোর-খুলনা মহাসড়ক দীর্ঘদিন ধরেই চলাচলের অনুপযোগী। এখন সে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এ কারণে এ মহাসড়কে এখন প্রতিনিয়তই গাড়ি দুর্ঘটনা কবলিত হচ্ছে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই