মেইন ম্যেনু

মোদির সফরকে ঘিরে উত্তপ্ত কাস্মির

নরেন্দ্র মোদির সফরকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে কাশ্মীর। বিজেপির নেতৃত্বাধীন নরেন্দ্র মোদির সরকার কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল করবে এমন আশঙ্কা থেকেই বিতর্কিত ওই প্রদেশটির মানুষ মোদির সফরকে কেন্দ্র করে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে। মোদির নেতৃত্বতে সরকার গঠন করার পরপরই মোদি সরকারের এক মন্ত্রী কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিলের বিষয়ে বক্তব্য দেয়ার পর থেকেই বিজেপি সরকারের প্রতি ক্ষোভ জানিয়েছিলেন কাশ্মিরের মুখ্যমন্ত্রী ওমর আব্দুল্লাহসহ সাধারণ মানুষ।
মোদির সফরকে ঘিরে সংঘর্ষ এড়াতে শুক্রবার প্রদেশটির বিভিন্ন স্থানে দোকান পাঠ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়। পাশাপাশি কাশ্মিরের সবচেয়ে বড় শহর শ্রীনগরের কিছু অংশে কার্ফু জারি করা হয়েছে। কার্ফু জারি প্রসঙ্গে এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, সংঘাত এড়াতেই এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। মোদি কাশ্মীর সফরে শ্রীনগর থেকে ২৭০ কিলোমিটার উত্তরের কাতরায় নতুন রেললাইনের উদ্বোধন করবেন। নতুন এই রেল লাইনটি হিন্দুদের মাতা ভেইসনো দেবীর মন্দির ভ্রমণের পথ সুগম করবে।
এসময় কাশ্মিরের মানুষের উদ্দেশ্য মোদি বলেন, ‘আমি মানুষের মন জয় করতে এখানে এসেছি।’ তবে হিন্দুত্ববাদী রাজনৈতিক দলেরে এই নেতা মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজ্যটির মানুষের মন কতটা জয় করতে পারে সেটাই দেখার বিষয়। ১৯৪৭ সালে ভারত বিভাগের সময় ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে ভাগ হয়ে যায় কাশ্মীর। যদিও দুদেশই পুরো কাশ্মিরের মালিকানার দাবি জানিয়ে আসছে। এদিকে গত দুই দশক ধরে স্বাধীনতার জন্য কাশ্মিরে বেশ কয়েকটি সশস্ত্র সংগঠন সক্রিয় রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই