মেইন ম্যেনু

ভদ্র’ হতে চান সানি লিওন

দিলীপ মজুমদার (কলকাতা): ‘পাস্ট ইজ পাস্ট৷’
তাঁর ত্বক থেকে দেহের প্রতিটি গভীর খাঁজ–মুচমুচে গসিপের আদর্শ খোরাক৷ আর এতেই আপত্তি বলিউডের নয়া গ্ল্যাম-গার্ল সানি লিওনের৷ প্রাক্তন পর্নস্টার সানি নিজের অতীত পেশা নিয়ে কোনওদিনই রাখঢাক করেননি৷ তবে হঠাত্‍ হলটা কী?
আসলে সানির এবার ভদ্র হতে মন চেয়েছে৷ শরীর ঢাকতে কয়েক টুকরো কাপড় নয়, সানির ওয়ার্ডরোব ভর্তি এখন ভারতীয় পোশাক৷ নায়িকার বক্তব্য, শুধু অভিনেত্রীই নন, তিনি একজন পতিব্রতা কর্তব্যপরায়ণ স্ত্রীও৷ তাই শুধু তাঁর ‘বোল্ড’ ইমেজ মনে রাখা উচিত নয়৷ সানির অভিযোগ, তাঁর অভিনয় নিয়ে পাবলিকের যত না আগ্রহ তার থেকেও বেশি মন তাঁর পুরনো জীবন নিয়ে৷ বিদেশে সুন্দরী এই পর্নস্টারের জীবন কেমন ছিল? কীভাবে তিনি ওই দুনিয়ায় পৌঁছেছিলেন? বলিউডের হাওয়ায় তাঁকে ঘিরে এমনই হাজার প্রশ্ন৷ তাই সানির অভিমান, মুম্বই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে নিজের দ্বিতীয় বাড়ি বলে মনে করলেও এখানকার কেউ কেউ এখনও তাঁকে পর্নস্টার হিসাবেই ভাবেন৷ ‘মার্ডার থ্রি’, ‘রাগিণী এমএমএস ২’-এর মতো বিতর্কিত হিট ছবিতে অভিনয় করে নজর কেড়েছেন৷ অথচ এরপর বেশিরভাগ ছবিতেই ‘বোল্ড’ চরিত্রের অফার পাচ্ছেন৷ লোকের ভুল ভাঙাতে তাই সানি আজকাল বিভিন্ন্ পার্টি, ফ্যাশন শোয়ে সালোয়ার-স্যুট, লেহেঙ্গা পরে ঘুরছেন!






মন্তব্য চালু নেই