মেইন ম্যেনু

যুক্তরাষ্ট্রের লাসভেগাসে

‘বৈপ্লবিক’ হত্যাকাণ্ডের পর আত্মহত্যা, নিহত ৫

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিলাসনগরী লাসভেগাসে ২ বন্দুকধারীর গুলিতে ‍২ পুলিশ সদস্য ও ১ বেসামরিক নাগরিক নিহত হন। গুলিবর্ষণের পর বন্দুকধারী নিজেদের অস্ত্র প্রয়োগ করে আত্মহত্যা করেন।

লাসভেগাসের একটি পিৎজা ক্যাফে ও পার্শ্ববর্তী ওয়ালমার্ট ভবনে স্থানীয় সময় সকাল ১১ : ৩০ মিনিটে এ হত্যাযজ্ঞ ঘটে।

জানা যায়, উল্লিখিত পিৎজা ক্যাফেতে ২ পুলিশ কর্মকর্তা দুপুরের খাবার খেতে বসেন। এমন সময় সেখানে অস্ত্রসহ ১ নারী ও ১ পুরুষ প্রবেশ করেন এবং অতর্কিতে পুলিশ সদস্যদের গুলি করে বসেন।

এরপর সেখান থেকে বেরিয়ে তারা পার্শ্ববর্তী ওয়ালমার্টের ভবনে প্রবেশ করেন এবং সেখানে এক ব্যক্তিকে গুলি করেন। রক্তক্ষরণে গুলিবিদ্ধ ঐ ব্যক্তির ঘটনাস্থলেই মৃত্যু ঘটে।

এরপর নারীটি তার পুরুষ সঙ্গীকে গুলি করেন। অতঃপর আত্মহত্যা করেন।

লাস ভেগাসের শেরিফ ডোগ গিলেসপি জানান, পুলিশ এখনও পর্যন্ত এ হত্যাকাণ্ডের পেছনে কোন উদ্দেশ্য খুঁজে বের করতে পারেনি।

প্রত্যক্ষদর্শীদের একজন জানিয়েছেন, গুলি করার সময় This is a revoulition! (এটা হচ্ছে বিপ্লব) বলে চিৎকার করে উঠছিলেন বন্দুকধারীরা।






মন্তব্য চালু নেই