মেইন ম্যেনু

বিয়ে করতে পারছেন না লম্বু ধর্মেন্দ্র

বেশ বিপদেই আছেন ভারতের ধর্মেন্দ্র সিং। না, তিনি কোনো রুপালি পর্দার নায়ক নয়। তবে মাথার দিক দিয়ে সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন। যদিও এখনো কোনো রেকর্ড করতে পারেননি তিনি। আর মাত্র ২ ইঞ্চি উঁচু হলেই বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ হতে পারতেন।

আপাতত বিয়ে নিয়ে বেশ সমস্যায় আছে ধর্মেন্দ্র। বেশি লম্বা হওয়ায় তার জন্য পাত্রী খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। শুধু এই কারণে কেউ তাকে চাকরিও দিচ্ছে না। ধর্মেন্দ্র সিংয়ের বাড়ি উত্তর প্রদেশের মিরাট শহরে। তার উচ্চতা ৮ ফুট ১ ইঞ্চি। মাথায় দেশের সবাইকে ছাড়িয়ে গেলেও এখনো বিশ্বের সেরা লম্বা মানুষ হতে পারেননি। মাত্র ২ ইঞ্চির জন্য এই রেকর্ড হাত ছাড়া হয়েছে তার।

এ মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ হচ্ছেন সুলতান কোসেন। তুরস্কের এই নাগরিকের উচ্চতা ৮ ফুট ৩ ইঞ্চি। ২০১৩ সালের ৮ ফেব্রুয়ারিতে তিনি গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে স্থান পান।

তবে অতিরিক্ত লম্বা হওয়ায় সহজেই লোকজনের দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারেন ধর্মেন্দ্র। তাকে নিয়ে পার্কে আগতদের অনেকেই শখ করে ছবি তুলে। কিন্তু টাকা দিতে চায় না। ছবি তোলা শেষে হলে অনেকেই কেটে পড়ে।

এদিকে বিয়ের জন্য মনমত পাত্রীও খুঁজে পাচ্ছেন না ৩২ বছরের ধর্মেন্দ্র। বেশি লম্বা বলে স্বাভাবিক উচ্চতার কোনো মেয়ে তাকে পছন্দ করছে না। তাই প্রেম করাও হচ্ছে না তার। অতিরিক্ত লাজুক হওয়ার কারনে এখনো প্রেমও করতে পারেননি। কলেজে থাকতে কোনো মেয়ের সঙ্গে ভাবও হয়নি তার। এদিকে ভালো একটা চাকুরিও জুটছে না। ইন্টারভিউ নেয়ার সময় চাকরিদাতারা বলেন,‘আপনি এত লম্বা, কাজ করবেন কীভাবে!

বর্তমানে শহরের একটি পার্কে লোকজনের আমোদ দেয়ার কাজ করছেন তিনি। সেখানে খাঁচার আদলে একটা কাঠামোর মধ্যে সারাদিন কাটিয়ে দেন। এ কাজে বেতন খুবই কম। মাত্র ১০ হাজার রুপি। তবে পার্কে আগতদের সঙ্গে ছবি তুললে কিছু বাড়তি আয় হয়। কিন্তু ছবি তোলার পর অনেকেই তাকে পয়সা দিতে চান না- পালিয়ে যান।

ধর্মেন্দ্রর পরিবারের সবার উচ্চতা কিন্তু স্বাভাবিক হলেও তিনিই হাত পায়ে বাড়াবাড়ি ভাবে বেড়ে ওঠেছেন। তবে তার নানার উচ্চতা কিছু বেশি ছিল-৭ ফুট ৩ ইঞ্চি। তাই অনেকে মনে করে থাকেন ধর্মেন্দ্রর উচ্চতা জেনেটিক।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন,‘লোকজন আমাকে নিয়ে খুব মজা করে। কেউ কেউ আমাকে জিরাফ বলে ডাকে। আবার কেউ বলে উট। কেউ আবার নিষ্কর্মা বলেও আমাকে অপমান করে। এগুলো শুনলে আমার খুব কষ্ট হয়। আমার বেশি বন্ধুও নেই। আমি চট করে কারো সঙ্গে মিশতে পারিনা। মেয়েদের সঙ্গে তো আরো না।’






মন্তব্য চালু নেই