মেইন ম্যেনু

বিশ্বকাপ ফাইনালে শাকিরার ‘লা-লা-লা’

ব্রাজিল বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পারফর্ম করেছিলেন র‌্যাপ গায়ক পিটবুল আর পপ তারকা জেনিফার লোপেজ। কিন্তু তাদের গাওয়া ‘ওলে ওলা’ গানটি ফুটবল প্রেমীদের তুষ্ট করতে পারেনি। তাই বিশ্বকাপের ফাইনালের দিন আরেক পপ তারকা শাকিরার অংশগ্রহণে থাকছে ‘লা-লা-লা’ গানটির মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা।

২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপে ‘ওয়াকা-ওয়াকা’ গানটি গেয়ে ফুটবলপ্রেমীদের মন কেড়ে নেন পপ গায়িকা শাকিরা। তারপর থেকে ফুটবল মানেই শাকিরার ‘ওয়াকা-ওয়াকা’। কিন্তু এবারের বিশ্বকাপের আবহসংগীতটি গাওয়ানো হয় র‌্যাপ গায়ক পিটবুল আর জেনিফার লোপেজকে দিয়ে। যা নিয়ে প্রথম থেকেই বিতর্কের সৃষ্টি হয়। তাই একরকম বাধ্য হয়েই বুধবার ফিফার পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিওয়োর মারাকানা স্টেডিয়ামে আয়োজিত সমাপনী অনুষ্ঠানে ‘লা লা লা’ গানটির সঙ্গে ব্যতিক্রমী এক পরিবেশনা নিয়ে আসছেন পপ গায়িকা শাকিরা এবং ব্রাজিলিয়ান তারকা কারলিনহোস ব্রাউন।

এদিকে ফিফার এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে শাকিরা বলেন, ‘বিশ্বকাপের সমাপনী অনুষ্ঠানে ‘লালালা’ গানটি পরিবেশনের সুযোগ পেয়ে আমি উচ্ছ্বসিত। ফুটবলের সঙ্গে আমার নিবিড় সম্পর্ক। তাই আমার মতো অন্যদের কাছেও বিশ্বকাপ ফুটবলের উন্মাদনা কতটা বেশি তা বুঝতে পারি।’

আগমী ১৩ জুলাই ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিওয়োর মারাকানা স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। সেদিন পুরো স্টেডিয়াম মাতাবেন শাকিরা ও কারলিনহোস ব্রাউন। সঙ্গে থাকছেন র‌্যাপার উইক্লিফ জিনও।

উল্লেখ্য, ব্রাজিল বিশ্বকাপ উপলক্ষে ব্রাজিলিয়ান গায়ক কার্লিনহোসের সঙ্গে জুটি বেধে ‘লা-লা-লা’ গেয়েছেন শাকিরা। ইতোমধ্যেই তার এই মিউজিক ভিডিওটি ইউটিউবে প্রায় চার কোটি দর্শক দেখেছেন। পাশাপাশি স্যান্টানা, উইক্লিফ এবং ব্রাজিলিয়ান গায়ক অ্যালেকজান্দ্রে পাইরেস একসঙ্গে টুর্নামেন্টের অফিসিয়াল অ্যান্থেম ‘দার উম জেইতো’তে গলা মেলাবেন বলে জানা গিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই