মেইন ম্যেনু

বাচ্চাকে ব্রেস্টফিডিং এ বাধার প্রতিবাদে ‘গণ-স্তন্যদান’

হাঙ্গেরিতে একটি রেস্তোরাঁয় বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় এক মহিলাকে বাধা দেবার প্রতিবাদে সেখানে এক ‘গণ-স্তন্যদান’ কর্মসূচি পালন করেছেন একদল মা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ খবর তুমুল আলোচনার জন্ম দিয়েছে, আর সমালোচনার মুখে রেস্তোরাঁটি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

গত বুধবার হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টে একটি ম্যাকডোনাল্ডস রেস্তোরাঁয় এ ঘটনা ঘটে। একজন মহিলা তার বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় তাতে বাধা দেন ওই রেস্তোরাঁর একজন নিরাপত্তা রক্ষী।

মহিলাটি ফেসবুকে লেখেন, তিনি বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর আগে একজন পরিচারিকাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন। পরিচারিকাটি বলেন, কোন সমস্যা নেই। কিন্তু ব্রেস্টফিড শুরু করার পর একজন নিরাপত্তারক্ষী এসে তাকে বলেন, তিনি যা করছেন তা গ্রহণযোগ্য নয়’ এবং তাকে পর পর দু’বার বুকের দুধ খাওয়ানো বন্ধ করতে বলেন।

ফেসবুক এবং অন্য সামাজিক যোগাযোগ সাইটের মাধ্যমে এ ঘটনা দ্রুত শহরময় ছড়িয়ে পড়ে।

এর প্রতিবাদে দু’দিন পর একদল মহিলা তাদের শিশুদের নিয়ে ওই রেস্তোরাঁতে অবস্থান নেন। তারপর সবার সামনে বুকের কাপড় তুলে যার যার শিশুকে স্তন্যপান করাতে শুরু করেন তারা। বেশ কিছু ফটোগ্রাফারও জড়ো হন এ সময়।

এর পর ম্যাকডোনাল্ডস কর্তৃপক্ষ দু:খ-প্রকাশসূচক এক বিবৃতি দিয়ে বলেছে, ‘পরিবার-বান্ধব’ ওই রেস্তোরাঁয় মহিলাদের ব্রেস্টফিড করাতে কোন বাধা নেই। বলা হয়, এর তদন্ত করা হচ্ছে।

বার্থহাউস ফাউন্ডেশন নামে একটি সংগঠনের কর্মী এবং তিন সন্তানের মা এরিকা স্মিডট বিবিসিকে বলেন, হাঙ্গেরিতে খুব কম মহিলাই প্রকাশ্যে তাদের বাচ্চাদের স্তন্যপান করান, কারণ তাদের ভয় – এ জন্য তাদের হয়রানি বা অপমানের শিকার হতে হবে।

‘তবে এই প্রথমবারের মতো মহিলারা সমবেত হয়ে এ ব্যাপারে তাদের সংহতি প্রকাশ করলেন, এ এক দারুণ ব্যাপার’ – বলেন এরিকা স্মিডট।






মন্তব্য চালু নেই