মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশের জন্য অনুদান ও সাহায্য ৪০ শতাংশ কমিয়ে দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী

ক্ষমতায় বসেই বাংলাদেশের জন্য ভারতীয় অনুদান ও সাহায্য ৪০ শতাংশ কমিয়ে দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রতিবছরই ভারতের জাতীয় বাজেটে প্রতিবেশী ও বন্ধুপ্রতিম দেশগুলোর জন্য অনুদান ও ঋণ বাবদ কিছু অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়। যদিও তারা নিজেরাই বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ঋণ ও সাহায্যগ্রহীতা দেশ।

দেশটির ২০১৪-২০১৫ সালের বাজেটে সার্কভুক্ত প্রায় সবকটি দেশের জন্যই অনুদান কমবেশি বাড়লেও শুধু বাংলাদেশের ক্ষেত্রে সহায়তা কমানো হয়েছে। গত বছর বাংলাদেশের জন্য বরাদ্দ ছিল ৫৮০ কোটি রুপি, এবার তা কমিয়ে ৩৫০ কোটি রুপি করা হয়েছে।

সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে ভুটানে ভারতের সাহায্য বেড়েছে সবচেয়ে বেশি, প্রায় ৫০ শতাংশ। আগের বছরের চার হাজার ১০০ কোটি রুপি থেকে বেড়ে এ বছর বরাদ্দ হয়েছে ছয় হাজার কোটি রুপি। ভুটান সব সময়ই ভারত থেকে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে সাহায্য পেয়ে আসছে। ক্ষমতা গ্রহণের পর মোদি প্রথম বিদেশ সফরে যান ভুটানেই।

এ বছর আফগানিস্তানকে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৬৭৬ কোটি রুপি, গত বছর যা ছিল ৫২৫ কোটি রুপি। এ ছাড়া নেপালকে দেওয়া হয়েছে ৪৫০ কোটি রুপি, আগের বছর যা ছিল ৩৮০ কোটি রুপি। এমনকি শ্রীলঙ্কার জন্যও আগের বছরের থেকে ৯০ কোটি রুপি বেশি বরাদ্দ রাখা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই