মেইন ম্যেনু

ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এগিয়ে রয়েছেন এমানুয়েল

ফরাসি নির্বাচন ইউরোপের ভবিষ্যৎতের জন্য এবার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ফ্রান্সে প্রথম দফার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে উদার মধ্যপন্থী এমানুয়েল ম্যাক্রন এবং কট্টর-ডানপন্থি দল ন্যাশনাল ফ্রন্টের (এফএন) প্রার্থী মারিন লি পেনের চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। বেলজিয়ামের গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বুথ ফেরত এক জরিপ এমটাই প্রকাশ করা হয়েছে।

দেশটির স্থানীয় সময় স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় ৬৭ হাজার ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। গুরুত্বপূর্ণ এই নির্বাচনে প্রার্থী ১১জন হলেও মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চার প্রার্থী। তবে বেলজিয়ামের গণমাধ্যমের এই বুথ ফেরত জরিপ কোথায় চালানো হয়েছে সেবিষয়ে স্পষ্ট কোনো তথ্য জানা যায়নি।

প্রার্থী মারিন লি ও মধ্যপন্থী এমানুয়েল ম্যাক্রো ছাড়াও রয়েছে মধ্য-ডানপন্থী রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ফ্রাসোয়া ফিলন ও কট্টর-বামপন্থী প্রার্থী জ্য লুক মেলাশো।

আধুনিক ফ্রান্সের ইতিহাসে এই প্রথম ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য নির্বাচনে প্রার্থী হননি। সমাজতান্ত্রিক প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলাদের জনপ্রিয়তা তলানিতে নেমে যাওয়াই-এর কারণ। সর্বশেষ জনমত জরিপগুলোর ফলাফলে মারিন ল্য পেন (৪৮) ও এমানুয়েল মাক্রোঁর (৩৯) মধ্যে রান-অফ ভোট হলে মাক্রোঁ জয়ী হবেন, আর তা হলে ফ্রান্সের সবচেয়ে কম বয়সী প্রেসিডেন্ট হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করবেন তিনি। জয়ী প্রার্থী আগামী ১৪ মে-র মধ্যে প্রেসিডেন্ট ওঁলাদের কাছ থেকে প্রেসিডেন্টের দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন।






মন্তব্য চালু নেই