মেইন ম্যেনু

ফিলিপাইনে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ৫

ফিলিপাইনে শনিবার ফুং-উয়ং ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে পাঁচ জন প্রাণ হারিয়েছে। এছাড়া ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী বন্যার কারণে ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ স্থানে সরে গেছে আরো ২ লাখ মানুষ।

স্থানীয় সরকারি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, ঘূর্ণিঝড় ফুং-উয়ংয়ের আঘাতে কমপক্ষে পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দু জন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছে। বাকি তিন জন কীভাবে প্রাণ হারিয়েছেন তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি।

শনিবার ঘণ্টায় প্রায় ১২০ কিলোমিটার ঝড়োহাওয়া নিয়ে ফিলিপাইনের উত্তরাঞ্চলে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড় ফুং-উয়ং। এই ঝড়ের ফলে রাতারাতি দেশটির একটি বড় অংশ বন্যায় তলিয়ে যায়। এর আগে গত তিন সপ্তাহ ধরে সেখানে বৃষ্টি চলছিল। বন্যায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চল হচ্ছে ম্যানিলা এবং উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশগুলো। এখানকার বাসিন্দারা বন্যায় ডুবে যাওয়া ঘরবাড়ির ছাদে আশ্রয় নিয়েছে। এসব বন্যা কবলিতদের সরিয়ে নেয়ার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন উদ্ধার কর্মীরা। এ পর্যন্ত দুই লাখের বেশি লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। অনেককে আবার বন্যার মধ্যেও নিজ বাড়িতেই অবস্থান করতে দেখা গেছে। ঘূর্ণিঝড় ও বন্যা কবলিত এলাকাগুলোতে উদ্ধার এবং ত্রাণ তৎপরতা চালানোর জন্য প্রায় ৫০ হাজার সেনা সদস্য নিয়োজিত করেছে ফিলিপাইন সরকার।

Fung-Wong storm {focus_keyword} ফিলিপাইনে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ৫ 4wnq8jydগত দুই সপ্তাহের মধ্যে ফিলিপাইনে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানল। এর আগে গত সপ্তাহে টাইফুন কালমায়েগি ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে কমপক্ষে আট জন নিহত হয়েছিল। এছাড়া গৃহহীন হয়েছিল প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষ ।

এদিকে ফিলিপাইনের পর ঘূর্ণিঝড়টি এখন তাইওয়ানের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। রোববার এটি তাইওয়ানে আঘাত হানবে বলে স্থানীয় আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই