মেইন ম্যেনু

প্লেবয় সুন্দরীর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

দু’বছর ধরে প্রতি রোববার ক্যাথলিক চার্চে গিয়েছি। ক্রিশ্চিয়ানিটি বুঝতে চেষ্টা করেছি। এছাড়াও কুয়ান ইন ও অন্যদের উপাসনা করার মাধ্যমে নতুন অর্থ খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করেছি। বৌদ্ধদের ধর্মীয় আচার পালনেরও চেষ্টা করি। কিন্তু ইসলাম ধর্ম জানার পর থেকে আমার হৃদয়ে অন্যরকম একটা অনুভূতির স্পর্শ অনুভব করতে লাগলাম। অন্য ধর্ম কখনও আমার হৃদয় এতটা স্পর্শ করে যায়নি। কথাগুলো বললেন মারয়েশিয়ার সাবেক প্লেবয় সুন্দরী ফেলিক্সিয়া ইয়েপ। গত বৃহস্পতিবার তিনি ইসলাম গ্রহণ করেছেন। বলেছেন, এর মাধ্যমে তার পুনর্জন্ম হয়েছে। ইসলাম গ্রহণের আগে ইসলাম সম্পর্কে জানতে ৭ মাস ব্যয় করেছেন তিনি। বৃহস্পতিবার তিনি প্লেবয় বানি’দের পোশাক ছুড়ে ফেলে দিয়ে গ্রহণ করেছেন ইসলাম ধর্ম। ফেসবুকে এক বিবৃতির মাধ্যমে এ ঘোষণা দিয়েছেন। নতুন এই সফরে ফেলিক্সিয়া যেন অবিচল ও অঙ্গীকারবদ্ধ থাকতে পারেন সে জন্য সকলের দোয়া প্রার্থনা করেছেন। একই সঙ্গে তিনি এ-ও বলেছেন, নতুন জীবনের জন্য যারা প্রার্থনা করেছেন শুধু আল্লাহই তাদের প্রতিদান দিতে পারবেন। ফেসবুকে ফেলিক্সিয়ার ৮ লাখ ৫০ হাজার অনুসারীর সাড়ে সাত লাখ ওই বিবৃতিতে লাইক দিয়েছে। বৃহস্পতিবার ইসলাম গ্রহণের জন্য বেছে নেয়ার কারণ হলো সেদিন ছিল ফেলিক্সিয়ার ২৮তম জন্মদিন। সাবেক প্লেবয় বানি ছাড়াও নিজ দেশে তারকা মডেল ছিলেন তিনি। এ বছরের শুরুর দিকে তিনি খোলামেলা ছবিতে পোজ দেয়া বন্ধ করে দেন। এরপর থেকে ঐতিহ্যবাহী মুসলিম পোশাকে মডেলিং করে আসছেন ফেলিক্সিয়া।






মন্তব্য চালু নেই