মেইন ম্যেনু

পাকিস্তানের রাজপথে চীন-সৌদি-তুরস্কের সেনাবাহিনী

পাকিস্তান কয়েকদিন আগেই জাতীয় দিবস পালন করেছে। আর সেই অনুষ্ঠান উপলক্ষে রাজধানী ইসলামাবাদে আয়োজিত দেশের পাক সামরিক বাহিনীর প্যারেডে প্রথমবারের মতো অংশ নিয়েছে চীন, সৌদি আরব ও তুরস্কের সেনারা। গত বৃহস্পতিবার এই প্যারেড অনুষ্ঠিত হয়। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করতেই প্যারেডে তিনটি দেশের সেনাদের অংশগ্রহণ।

পাকিস্তান দিবসের প্যারেডে এবারই প্রথমবারের মতো চীন, সৌদি আরব ও তুরস্কের সেনারা অংশ নেয়। সৌদি পদাতিক বাহিনীর প্রতিনিধিত্ব করে সৌদি স্পেশাল ফোর্স। চীনের পিপল’স লিবারেশ আর্মি ও তুর্কি সেনাবাহিনীর সামরিক ব্যান্ড অংশ নেয়। প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসেন প্যারেডে চিনা সেনাবাহিনীর উপস্থিতিকে ঐতিহাসিক ঘটনা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি জানান, উভয় দেশ একসঙ্গে বেশ কয়েকটি পরিকাঠামো প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে। এতে করে দুই দেশের সম্পর্ক আরও বৃদ্ধি পাবে।

১৯৪০ সালের লাহোর প্রস্তাবের স্মরণে পাকিস্তানে প্রতিবছর ২৩ মার্চকে পাকিস্তান দিবস হিসেবে পালন করা হয়। ওই দিন অল ইন্ডিয়া মুসলিম লিগের পক্ষ থেকে মুসলিমদের জন্য পৃথক রাষ্ট্র পাকিস্তান গড়ে তোলার দাবি উত্থাপন করা হয়েছিল। এই বছর ৭৭তম পাকিস্তান দিবস পালন করা হয়। সাত বছর বিরতির পর ২০১৫ সালে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর শক্তি প্রদর্শণের প্রতীক হিসেবে যৌথ সামরিক প্যারেড পুনরায় শুরু হয়। ইসলামাবাদ বেজিংকে তাদের সব সময়ের বন্ধু হিসেবে মনে করে। সম্প্রতি চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর (সিপিইসি) নির্মাণের জন্য ৫৭ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি হয়েছে। পাকিস্তানের আরব সাগরের বন্দর গোয়াদারে সড়ক, রেলপথ ও পাইপলাইন স্থাপন করা হবে অর্থনৈতিক করিডোরের আওতায়। সূত্র: কলকাতা টুয়েন্টিফোর।






মন্তব্য চালু নেই