মেইন ম্যেনু

পশ্চিমবঙ্গে অনুপ্রবেশ ঠেকানোর আহ্বান প্রবীণ তোগাড়িয়ার

পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের বিতাড়িত করার আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সভাপতি প্রবীণ তোগাড়িয়া।

শনিবার কলকাতার শহীদ মিনারে এক জনসভায় এ আহ্বান জানান তিনি।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যকে ‘অনুপ্রবেশকারীমুক্ত` করার ডাক দিয়ে প্রবীণ তোগাড়িয়া বলেন, `দেশে প্রায় তিন কোটি অনুপ্রবেশকারী রয়েছে। এ অনুপ্রবেশকারীরা দেশের নিরাপত্তা এবং হিন্দুদের জন্য বিপদ। তাই একজন বাংলাদেশিকেও যেন থাকার জন্য ঘর দেওয়া না হয়।’

প্রবীণ তোগারিয়া জানান, একসময় বাংলাদেশে ৩০ শতাংশ হিন্দু ছিল। আজ সেখানে মাত্র ৮ শতাংশ হিন্দু রয়েছে। বাংলাদেশ থেকে তাদের তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে যেসব হিন্দু অত্যাচারিত হয়ে ভারতে এসেছেন তাদের নাগরিকত্ব দিতে হবে।’

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ধর্মান্তরকরণ অনুষ্ঠান নিয়ে দেশজুড়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে। তবে প্রবীণ তোগাড়িয়ার মতে এটা ধর্মান্তর নয়। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এক সময় ভারতের সব মানুষই হিন্দু ছিল। আজ তা ৮১ শতাংশে এসে দাঁড়িয়েছে। তাই একসময় যারা ধর্মান্তরিত হয়েছিলেন, তারা যদি ফের স্বধর্মে ফিরে আসেন তাকে ধর্মান্তরকরণ বলা হবে কেন?’

প্রবীণ তোগাড়িয়ার কথাকে যথার্থ বলেন আরএসএসের সরসঙ্ঘ চালক মোহন ভাগবত। তার মতে, ‘এক সময় যারা ধর্মান্তরিত হয়েছিলেন তাদের আবার ফিরিয়ে আনতে হবে।’

এ সময় ইমাম, মুয়াজ্জিনদের ভাতা দেওয়ারও বিরোধিতা করেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সভাপতি।






মন্তব্য চালু নেই