মেইন ম্যেনু

দুই তুর্কি সেনাকে পুড়িয়ে মারল আইএস!

লোহার খাঁচা থেকে বের করা হলো পোশাক পরা দু’জন সেনা সদস্যকে। গলায় ও হাটুতে লোহার শেকল দিয়ে বাঁধা। হাঁটুতে ভর দিয়ে সামনে নিয়ে যাওয়া হলো তাদের। তারপর জীবিত পুড়িয়ে দেয়া হলো তাদের।

সিরিয়ায় দুজন তুর্কি সেনাকে এভাবে পুড়িয়ে হত্যা করার নৃশংস ভিডিও প্রকাশ করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

আইএসের সংবাদ সংস্থা ‘আমাক’ জানিয়েছে, গত মাসে দুজন তুর্কি সেনাকে অপহরণ করে তাদের যোদ্ধারা।

তুর্কি সেনাবাহিনীও একাধিকবার তাদের দুজন সেনার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছিল।

বুধবার সিরিয়ার আলেপ্পো শহরের আল-বাবে ১৬ জন তুর্কি সেনা এবং ১৩৮ জন আইএস জঙ্গি নিহত হয়। এটি আইএসবিরোধী যুদ্ধে তুর্কি বাহিনীর বড় ধরনের ক্ষতি।

এই ঘটনার পরদিনই দুজন তুর্কি সেনাকে পুড়িয়ে হত্যার ১৯ মিনিটের একটি ভিডিও ক্লিপ প্রকাশ করে আইএস।

ভিডিওতে দুই সেনার হত্যাকারীকে তুর্কি ভাষায় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেফ তাইয়িপ এরদোগানের সমালোচনা করতে দেখা যায়। সে তুরস্কে ধ্বংসযজ্ঞ চালানোরও আহ্বান জানায়।

দুই সেনার ওপর চালানো নৃশংসতার ঘটনা জর্দানি পাইলট মোয়াজ আল কাসাসবেহকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনা মনে করিয়ে দিচ্ছে। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে সিরিয়ায় তার বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পর তাকে ধরে ফেলে আইএস। পরে তাকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়।

এদিকে দুজন সেনাকে পুড়িয়ে হত্যার ভিডিও প্রকাশিত হওয়ার পর তুরস্কে টুইটার, ইউটিউব এবং ফেসবুক বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

এর আগে তুরস্কে নিয়োজিত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আন্দ্রেই কারলভ নিহত হওয়ার পরও একই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল। ফলে এ নিয়ে চলতি সপ্তাহে দু’বার সামাজিক মাধ্যমগুলো বন্ধ রাখা হলো।






মন্তব্য চালু নেই