মেইন ম্যেনু

দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আম্মার জামিন

শুভদিনেই এল আনন্দ সংবাদ। এআইএডিএমকে-র প্রতিষ্ঠাদিবসে জামিন পেলেন জয়রাম জয়ললিতা। আম্মার জামিনের খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে খুশিতে মেতে উঠেছেন এআইএডিএমকে সমর্থকরা। হিসেব বহির্ভূত সম্পত্তির মালিকানা মামলায় এআইএডিএমকে সুপ্রিমো জয়ললিতাকে ৪ বছরের কারাদণ্ড দেয় সুপ্রিম কোর্ট। বেঙ্গালুরুর পারাপ্পানা অগ্রহার জেলে তাঁর ঠাঁই হয়।

কর্নাটক হাইকোর্টে এর আগে জামিনের আবেদন করেও লাভ হয়নি নেত্রীর। এবার সুপ্রিম কোর্টে ফের আবেদন জানানোর পর শুক্রবার সকালে তাঁর অন্তর্বর্তী শর্তাধীন জামিন মঞ্জুর হয়েছে। এদিন শীর্ষ আদালতে ডায়াবেটিস, সেলুলাইটিস, হাইপারটেনশন সহ বিবিধ রোগে আক্রান্ত ৬৬ বছরের নেত্রীর তরফে জামিনের আবেদন জানান তাঁর আইনজীবী তথা সংবিধান বিশেষজ্ঞ নরি ফালিম্যান।

আবেদনে আরও বলা হয়, কর্নাটক হাইকোর্ট যেহেতু আপাতত ১৯৮৬ সাল থেকে অপরাধের খতিয়ান ববিচারে ব্যস্ত, সেই কারণে জয়ললিতার জামিনের আবেদন শুনতে তাঁর কারাবাসের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এই যুক্তি দর্শিয়ে আম্মার জামিনের জন্য অনুরোধ জানান নারিম্যান। জয়ললিতার আবেদনের জেরে শারীরীক অসুস্থতার কারণে এদিন তাঁকে শর্তসাপেক্ষে অন্তর্বর্তী জামিন দিয়েছে শীর্ষ আদালত। বিচারপতির নির্দেশ অনুযায়ী, আগামী ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ির বাইরে যেতে পারবেন না নেত্রী। দেখাও করতে পারবেন না কারও সঙ্গে। এদিকে -জামিনের খবর প্রকাশ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উল্লাসে ফেটে পড়েন আম্মা সমর্থকরা। ঘটনাচক্রে এদিন এআইএডিএমকে দলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাদিবস। এই কারণে এদিনই নেত্রীর কারাদণ্ডে সাময়িক স্থগিতাদেশ ঘোষিত হওয়ায় আনন্দে মেতেছেন দলীয় কর্মী-সমর্থক-নেতারা।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই