মেইন ম্যেনু

‘পরাজিত শক্তির পাশবিক রূপ বেরিয়ে পড়েছে’

তৃতীয় দফায় সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি আসাদ

আবারও সাত বছর মেয়াদী সিরিয়ার রাষ্ট্রপতিত্বে আরোহন করলেন আসাদ। বুধবার তৃতীয়বারের মতো দেশটির রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ গ্রহণ করলেন তিনি। আসাদবিরোধীরা একে প্রতারণাপূর্ণ নির্বাচন বলে দাবি করে আসছিল।

রাজধানী দামেস্কের রাষ্ট্রপতি ভবনে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে শপথ গ্রহণ করেন তিনি। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন তা সরসরি সম্প্রচার করে।

শপথ গ্রহণের পর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি যতদিন সিরিয়া পুরোপুরি সন্ত্রাসমুক্ত না হবে ততদিন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। সেইসঙ্গে তিনি তার বিরোধীদের সঙ্গে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে বিরোধ নিষ্পত্তির আশ্বাসও প্রদান করেন।

সিরিয়ার সর্বশেষ নির্বাচনটি ছিল দেশটির উদ্ভবের পর থেকে শুরু করে সর্বপ্রথম বহুদলীয় নির্বাচন। এতে ৮৮ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট লাভ করে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেন বাশার আল আসাদ।

উল্লেখ্য, শুধুমাত্র সরকারী প্রভাব অধ্যুষিত অঞ্চল সমূহে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে আসাদ আরও বলেন, ‘তিন বছর চার মাস আগের কথা। কিছু লোক স্বাধীনতার কথা বলে কান্না জুড়ে দিয়েছিল। তারা নাকি একটি বিপ্লব চায়।’

উপস্থিতদের লক্ষ্য করে তিনি বলেন, ‘কিন্তু আমি সত্যিকার বিপ্লবীদের এখানে দেখতে পাচ্ছি। আপনাদের সফল বিপ্লব ও বিজয়ের জন্যে আমার অভিনন্দন গ্রহণ করুন।’

বিরোধীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘ঐ পরাজিত শক্তি এখন দেখুক। তাদের পাশবিক রূপটি বেরিয়ে পড়েছে। খসে পড়েছে স্বাধীনতাকামী, বিপ্লবীর মুখোশ।’

পরোক্ষভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তার আরব দোসরদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘যে আরব ও পশ্চিমা শক্তি আমাকে উৎখাতের জন্যে ষড়যন্ত্র করছে, শিগগিরই সন্ত্রাসবাদের মদদ যোগানোর কারণে তাদেরকে চরম মূল্য দিতে হবে।’






মন্তব্য চালু নেই