মেইন ম্যেনু

জয়ললিতা দোষী সাব্যস্ত : ছাড়তে হবে মুখ্যমন্ত্রিত্ব

তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ও অল ইন্ডিয়া আন্না দ্রাবিড়া মুনেত্রা কাজাঘামের (এআইএডিএমকে) প্রধান জয়ললিতা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের বিরুদ্ধে করা মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন।

শনিবার ভারতীয় সময় দুপুর ১টায় মামলায় রায় ঘোষণা করা হয়।

দোষী প্রমাণিত হওয়ায় যে শাস্তিই হোক না কেন, জয়ললিতার সামনে এখন কঠিন চ্যালেঞ্জ। ছাড়তে হবে মুখ্যমন্ত্রীর পদ, ভেঙে দিতে হবে মন্ত্রিসভা এবং রাজ্য পরিষদের সদস্যপদও হারাবেন তিনি।

শনিবার আদালতের নির্দেশমতো মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতাসহ এ মামলার অন্য অভিযুক্তরা যথাসময়ে আদালতে হাজির হন। তাদের সামনেই রায় পাঠ করেন বিশেষ আদালতের বিচারক জন মাইকেল ডি’কুনাহ। রাজ্যের কেন্দ্রীয় জেল পারাপান্না আগ্রাহারায় স্থাপিত বিশেষ আদালতে এ রায় ঘোষণা করা হয়েছে।

আদালতে দাঁড়িয়ে জয়ললিতা বলেন, ‘এ মামলা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং আমাকে হয়রানি করার জন্য মামলা করা হয়েছে।’

এ রায়কে কেন্দ্র করে আদালতের বাইরে ও তামিলনাড়ুতে দলের প্রধান কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ তুমুল বিক্ষোভ করছে দলের হাজার হাজার নেতা-কর্মী। রাজ্যজুড়ে পুলিশের সতর্ক অবস্থান রয়েছে। আদালত চত্বরে বেশ কয়েক শ আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যও মোতায়েন করা হয়েছে। এ নিয়ে সেখানে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের দায়ে ১৯৯৬ সালে জয়ললিতার বিরুদ্ধে মামলা করে দেশটির দুর্নীতি দমন কমিশন। এ মামলায় জয়ললিতা ছাড়াও তামিলনাড়ু রাজ্য সরকারের মন্ত্রী পানিয়ারসেলভাম, কে পালানিস্বামী ও নাথাম আর বিশ্বনাথসহ এআইএডিএমকের বেশ কিছু নেতা রয়েছেন।

লোকসভায় তৃতীয় সংখ্যাগরিষ্ঠ জয়ললিতারর দল। ভারতের কেন্দ্রীয় নরেন্দ্র মোদি সরকারের সঙ্গে তার বিবাদ রয়েছে ।

তথ্যসূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইন।






মন্তব্য চালু নেই