মেইন ম্যেনু

জুনের মধ্যেই আসাম সীমান্ত বন্ধ করবে ভারত

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বাংলাদেশের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া হবে বলে জানানোর একদিন পর রোববার দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার সীমান্ত বন্ধের চূড়ান্ত সময় নির্ধারণ করেছে।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আসাম প্রদেশের সঙ্গে বাংলাদেশের ২২৩ দশমিক ৩ কিলোমিটার সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধ করতে এক বছরের সময়সীমা নির্ধারণ করেছে কেন্দ্র। আগামী জুনের মধ্যে এ কাজ সম্পন্ন হবে বলে প্রত্যাশা করেছে দেশটির সরকার।

নয়াদিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে উচ্চপর্যায়ের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে রোববার। আগামী জুনের মধ্যে নদীমাতৃক ও স্থল সীমান্তে প্রযুক্তিগত প্রতিবন্ধকতা পুরোপুরি স্থাপন করা হবে বলে এতে ঘোষণা দেয়া হয়।

নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নেতৃত্বাধীন সরকার রাজ্যের ক্ষমতায় আসার পর পরই এ সিদ্ধান্ত নিলো কেন্দ্রীয় সরকার। অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশ ঠেকাতে সদ্য অনুষ্ঠিত রাজ্য সরকার নির্বাচনে বাংলাদেশের সঙ্গে আসাম সীমান্ত বন্ধের প্রতিশ্রুতি দেয় বিজেপি।

বিএসএফের এক মুখপাত্র বলেন, ২০১৭ সালের জুনের মধ্যে বাংলাদেশ-আসাম সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর অতিরিক্ত মহাপরিচালক ও সিপিডব্লিউডির অতিরিক্ত মহাপরিচালক (সীমান্ত) সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

একটি সূত্রের বরাত দিয়ে এনডিটিভি বলছে, বাংলাদেশ-আসাম সীমান্তের অন্তত ১২২ স্থানে (৬০ দশমিক ৭ কিলোমিটার) কোনও ধরনের প্রতিবন্ধকতা নেই।

দেশটির সরকারি এক বিবৃতিতে সীমান্ত নিরাপত্তার জন্য ভারত ইতোমধ্যে বাংলাদেশের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সীমান্তে ৪ হাজার ৩৭৪ কিলোমিটার বেড়া নির্মাণ, ৫ হাজার ৩২৯ দশমিক ৬ কিলোমিটার এলাকায় ফ্লাডলাইট ও ২ হাজার ৪২০টি বর্ডার আউস্ট পোস্ট স্থাপন করেছে বলে জানিয়েছে।

সূত্র : এনডিটিভি।






মন্তব্য চালু নেই