মেইন ম্যেনু

জঙ্গিনেতা তানভীর কাদেরীর ছেলেকে নিস্তেজ করার চেষ্টায় পুলিশ

রাজধানীর দক্ষিণখানের আশকোনার পূর্বপাড়ায় ‘সূর্যভিলা’ নামে যে বাসাটি ঘিরে অভিযান চলছে ওই বাসার ভেতরে জঙ্গিনেতা তানভীর কাদেরীর ছেলে গ্রেনেড নিয়ে বসে আছেন বলে ধারণা পুলিশের। আর তাকে নিস্তেজ করতে দুপুর ১টার দিকে ওই বাসার ভেতরে টিয়ার শেল নিক্ষেপ করা হয়েছে।

এরআগে আত্মসমর্পণের কথা বলে বেরিয়ে আসার সময় শরীরে থাকা বেল্টের বিস্ফোরণ ঘটান এক নারী। ওই বিস্ফোরণে এক শিশুও আহত হয়। শিশুটিকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তবে ওই নারীর দেহ এখনো পড়ে আছে বাসাটিতেই। তিনি জীবিত আছেন না মারা গেছেন সে বিষয়ে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের এডিসি ছানোয়ার হোসেন ভেতর থেকে বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের বিস্ফোরণের বিষয়টি জানান।

ভেতরে অবস্থানরত যাকে তানভীর কাদেরীর ছেলে বলে ধারণা করা হচ্ছে তার বিষয়ে ছানোয়ার বলেন, তার সারী শরীরে গ্রেনেড বাঁধা রয়েছে।

শনিবার মধ্যরাত থেকে দক্ষিণখানের আশকোনার পূর্বপাড়ার ৫০ নং বাসাটি ঘিরে রাখে পুলিশ। সকালের দিকে দুই শিশুকে নিয়ে ওই বাসাটি থেকে দুই নারী বেরিয়ে এসে আত্মসমর্পণ করেন। এদের মধ্যে একজন সেনাবাহিনী থেকে বহিষ্কৃত মেজর জাহিদের স্ত্রী। অন্যজন পলাতক জঙ্গিনেতা মূসার স্ত্রী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

দুপুড় সাড়ে ১২টার একটু আগে ঘটনাস্থল থেকে একটি অ্যাম্বুলেন্স বেরিয়ে যেতে দেখা গেছে। অ্যাম্বুলেন্সের ভেতরে হেলমেট পড়া অবস্থায় এক ব্যক্তি ছিলেন। তবে তিনি কে সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই