মেইন ম্যেনু

কমছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ক্ষমতা!

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতা কমানো নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। বিশেষ করে আমেরিকাকে বিপদে বা বিব্রতকর পরিস্থিতে ফেলতে পারে এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে নির্বাহী ক্ষমতা কমানো হচ্ছে প্রেসিডেন্টের। এজন্য প্রথমেই প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র বিষয়ক নির্বাহী ক্ষমতা কমানোর চিন্তা করা হচ্ছে।

প্রতিনিধি পরিষদের একদল সদস্য এ সংক্রান্ত একটি বিল আনার জন্য কংগ্রেসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। সেখানে যুদ্ধ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। বিলটি পাস হলে প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পের যুদ্ধ-ক্ষমতা কমিয়ে দেয়া হবে।

প্রতিনিধি পরিষদের ১২ জন সদস্য এক চিঠিতে এ অনুরোধ জানিয়েছেন। এর মধ্যে বিরোধী ডেমোক্র্যাট ও সরকারি রিপাবলিকান দলের সদস্য রয়েছেন। ওই চিঠির একটি কপি ২১ ফেব্রুয়ারি ইউরোপের পত্রিকা ‘পলিটিকো’র হাতে পড়েছে। প্রতিনিধি পরিষদের এসব সদস্য ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর আমেরিকায় হামলার জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে হোয়াইট হাউজকে যুদ্ধ ঘোষণার ক্ষমতা দিয়ে পাস করা ২০০১ নম্বর প্রস্তাবটি বাতিলের জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রতিনিধি পরিষদের এসব সদস্য বলেছেন, ওই প্রস্তাব পাসের মাধ্যমে যুদ্ধ করার জন্য প্রেসিডেন্টকে ‘খালি চেক’ দেয়া হয়েছে।

আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন শীর্ষ পর্যায়ের সেনা কমান্ডার জেনারেল জন নিকোলসন যখন তালেবানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য আরো কয়েক হাজার সেনা চেয়েছেন তখন কংগ্রেসকে এ চিঠি দেয়া হলো। যারা এতে সই করেছেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকজন হচ্ছেন-বারবারা লি, কিথ এলিসন এবং ওয়াল্টার জোন্স।






মন্তব্য চালু নেই