মেইন ম্যেনু

ওবামার বাশারবিরোধী বিপুল অংকের বাজেট প্রস্তাব

সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আল আসাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত সশস্ত্র বাহিনীর জন্যে মার্কিন কংগ্রেসে ৫০ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা প্রস্তাব অনুমোদনের জন্যে সুপারিশ করেছেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা।

যুক্তরাষ্ট্রের বাশার আল আসাদ বিরোধী অবস্থানের সপক্ষে এটি এ যাবতকালের সবচেয়ে ব্যয়বহুল পরিকল্পনা। এর অধীনে বাশারবিরোধী সশস্ত্র যোদ্ধাদের উচ্চতর প্রশিক্ষণ ও অস্ত্র সহায়তা দেয়া হবে। বলা হচ্ছে, বাশারবিরোধী বাহিনীর আধুনিকায়নের জন্যে এটা প্রয়োজন।

তবে সিরিয়ায় বাশারবিরোধী সশস্ত্র দল, যারা একই সঙ্গে ইরাক আক্রমণের জন্যেও সাম্প্রতিক সময়ে বড় পরিসরে গণমাধ্যমে আলোচিত হয়েছে, সেই আইসিস (ইসলামিক স্টেট অব ইরাক এন্ড সিরিয়া/ল্যাভান্ট), এই সহায়তার অন্তর্ভুক্ত হবে না। বরং এ অর্থায়ন তাদের বিপক্ষেও ব্যবহৃত হবে।

৫০ কোটি মার্কিন ডলারের এ পরিকল্পনা থেকে বাদ দেয়া হয়নি সিরিয়ার বেসামরিক সাধারণ নাগরিকদের। হোয়াইট হাউসের ভাষ্য, ‘এ অর্থ, সিরীয় সরকারবিরোধীদের শক্তিশালী করার পক্ষে মার্কিন প্রশাসনের দীর্ঘমেয়াদী পদক্ষেপ, সশস্ত্রদের পাশাপাশি সাধারণ নাগরিকও এ পরিকল্পনার অন্তর্ভুক্ত।

বিগত তিন বছরে সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে দেড় লাখেও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। প্রায় ১ কোটি হয়েছে গৃহহীন এবং ৩০ লাখ হয়েছে শরণার্থী। মার্কিন এ অর্থপ্রস্তাবনা সংঘাতকে আরও উসকে দিয়ে এ সংকটকে আরও ঘনীভূত করতে পারে বলে সংশ্লিষ্টদের অভিমত।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি নিউইউয়র্কে এক বৈঠকে জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি-মুন বেসামরিক নাগরিকদের নির্বিচারে মৃত্যুতে ব্যথিত হয়ে অস্ত্র সরবরাহকারী দেশগুলোকে সিরিয়ায় অস্ত্র সরবরাহ বন্ধের অনুরোধ করেছেন এবং জাতিসংঘের সংশ্লিষ্ট বিভাগকে উদ্যোগ গ্রহণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন।

ওবামার এ প্রস্তাবনা সে উদ্যোগের সফলতাকেও দূরান্বিত করতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই