মেইন ম্যেনু

ইরাকে আরো ২শ সেনা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ইরাকে আরো ২শ মার্কিন সেনা পাঠানো হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। ইরাকে অবস্থানকারী আমেরিকান নাগরিক এবং বাগদাদের মার্কিন দূতাবাসের সুরক্ষায় এসব সেনা পাঠানো হচ্ছে বলে তিনি জানান।। সৈন্য ছাড়াও ইরাকে বেশ কিছু হেলিকপ্টার এবং ড্রোন বিমানও পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট।

এদিকে পেন্টাগন মুখপাত্র রেয়ার এডমিরাল জন কিরবে সোমবার বলেন, বাগদাদে মার্কিন দূতাবাস এবং বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করতে রোববার আরো ২শ মার্কিন সেনা ইরাকে গিয়ে পৌঁছেছে। এছাড়া আগামী কয়েক দিনের মধ্যে ইরাকের নিরাপত্তা বৃদ্ধি এবং নৈতিক সমর্থন যোগাতে আরো প্রায় একশ মার্কিন সেনা বাগদাদ পৌঁছুবে।

এক বিবৃতিতে কিরবে আরো বলেন, এই তিন শ মার্কিন সেনা দুটি যৌথ অপারেশন সেন্টারে কাজ করবে। এসব সেনাদের কাজ হবে ইরাকের নিরাপত্তা বাহিনীকে যুক্তরাষ্ট্র কীভাবে সহায়তা করতে পারে তা খতিয়ে দেখা। পেন্টাগন আরো বলছে, এর আগে জুন মাসের গোড়ার দিকে বাগদাদের মার্কিন দূতাবাসে ২৭৫ জন সেনা প্রাথমিকভাবে মোতায়েন করা হয়েছিল। এছাড়া ইরাকের বাইরে অবস্থানকারী আরো একশ সেনাকেও বাগদাদে পাঠানো হচ্ছে বলে পেন্টাগন জানিয়েছে।

পেন্টাগনের এই ঘোষণা থেকে জানা যায়, ইরাকের বিভিন্ন স্থানে সবমিলিয়ে আটশ মার্কিন সেনা মোতায়েন করছে যুক্তরাষ্ট্র। এসব মার্কিন সৈন্যরা ইরাকী সৈন্যদের প্রশিক্ষণ, দূতাবাসের নিরাপত্তা রক্ষা, ওয়াশিংটনের স্বার্থ রক্ষা ইত্যাদি নানাবিধ কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকবে বলে আল জাজিরায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এর আগে ইরাকের গৃহযুদ্ধে কোনো মার্কিন সেনা অংশ নেবে না বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। কিন্তু এখন তিনি বলছেন, ইরাকে পাঠানো এসব অতিরিক্ত মার্কিন সেনারা লড়াইয়ে অংশ নেবে। ইরাকের নিরাপত্তা পরিস্থিতি উন্নত না হওয়া পর্যন্ত তারাসেখানে অবস্থান করবে বলেও জানিয়েছেন ওবামা।






মন্তব্য চালু নেই