মেইন ম্যেনু

অফিস করলেন ‘নতুন’ মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা

এর আগে চারবার তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করলেও এবারের দায়িত্বটা ‘নতুন’ই জয়ললিতার জন্য! কারাদণ্ডাদেশ, জেল খাটা, মুখ্যমন্ত্রিত্ব খোয়ানো— মাত্র কয়েক মাসে এ সব অভিজ্ঞতার স্বাদ নিতে হয়েছে তাকে। এ অবস্থায় শিগগিরই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসবেন এ আশা হয়ত তার একনিষ্ঠ ভক্তরাও করেনি।

আদালতের এক রায়ে মুখ্যমন্ত্রিত্ব হারানো ‘আম্মা’ খ্যাত জয়ললিতা আবারও আদালতের রায়ের বদৌলতেই সেই পদ ফিরে পেলেন। শপথ নেওয়ার পর রবিবার থেকে অফিস করা শুরু করেছেন তিনি।

ক্ষমতায় থাকাকালীন ১৯৯০-৯৬ সালে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গত বছর জয়ললিতাকে চার বছরের জেল ও ১০০ কোটি রুপি জরিমানা করেছিল ব্যাঙ্গালুরুর একটি আদালত। ওই রায়ের পরই আদালতের বিধান অনুযায়ী মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য অযোগ্য হয়ে পড়েন তিনি।

এরপর পদত্যাগ করে এআইএডিএমকে দলের অপর নেতা পনিরসেলবামকে মুখ্যমন্ত্রী করেন। ভারতের কর্নাটকের উচ্চ আদালতে ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করলে শুনানী শেষে আদালত তাকে খালাস দেয়।

এরপরই গত শুক্রবার তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন পনিরসেলবাম। শনিবার রাজ্যটির পাঁচবারের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন ৬৭ বছর বয়সী এ নেত্রী।

নতুন করে শপথ নেওয়ার পর রবিবার স্থানীয় সময় বিকেল ৩টায় অফিস শুরু করেন জয়ললিতা। এ সময় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাকে স্বাগত জানান।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ দিন অফিস করার পাশাপাশি কম খরচের ‘আম্মা’ ক্যান্টিনের উদ্বোধন করবেন তিনি। চেইন কার্যক্রমের মাধ্যমে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে এ ক্যান্টিন পরিচালনা করা হবে।

এ ছাড়া এ দিন একটি পুলিশ সদর দফতর ও সরকারি কাজে ব্যবহৃত বেশ কয়েকটি গাড়ির উদ্বোধন করবেন ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় এ নেত্রী।






মন্তব্য চালু নেই