মেইন ম্যেনু

লেবানন ছাড়ছেন বিতর্কিত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত

দূতাবাসে এক বাংলাদেশিকে আটকে রাখা ও অপর এক বাংলাদেশিকে অপহরণ করানোর অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় লেবাননে বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত গওসুল আজম সরকারকে বৈরুত ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বৈরুতের গণমাধ্যম এ খবর দিয়েছে।

১৭ জুলাই তাকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লেবানন ছাড়ার নির্দেশনা দেয়া হয়। তাকে ঢাকায় ফিরিয়ে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। শনিবার এমনটাই নিশ্চিত করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঅনুবিভাগের একজন পরিচালক পদমর্যাদার কর্মকর্তা।

এ বিষয়টি সামাল দিতে গত ২ দিন আগে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পশ্চিম ও মধ্য এশিয়া উইংয়ের মহা পরিচালক নজরুল ইসলাম জরুরি ভিত্তিতে বৈরুতে যান। শুক্রবার গওসুল আজমের দেশের ফেরার সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয় বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র।

রাষ্ট্রদূত গওসুলকে বহিষ্কারের আগে তাকে মৌখিকভাবে সতর্ক করে দিয়েছিল লেবানিজ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বৈরুতে গত বছরের জুলাইয়ে বাংলাদেশ দূতাবাস কার্যক্রম শুরু করলে সুইডেন থেকে এসে যোগদেন গওসুল আজম সরকার। এর আগে স্টকহোমে দায়িত্ব পালন করার সময়েও তিনি সমালোচিত হন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের কারণে। সেখানে অনৈতিক কাজের দায়ে তার স্ত্রীকে স্টকহোম ছাড়ার নির্দেশ দেয় সুইডেন কর্তৃপক্ষ। এ নির্দেশের পর গওসুল আজম নিজেই স্টকহোম ছাড়ার উদ্যোগ নেন।






মন্তব্য চালু নেই