মেইন ম্যেনু

লিটন হত্যা: সাবেক এমপি কাদের খান ১০ দিনের রিমান্ডে

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের এমপি মনজুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি কর্নেল (অব.) আবদুল কাদের খানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে গাইবান্ধা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মাইনুল হাসান ইউসুফ এই আদেশ দেন। এ সময় সাবেক এমপি কাদেরকে আদালতে হাজির করা হয়।

এর আগে সকালে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন পুলিশের রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি গোলাম ফারুক। সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, এমপি লিটন হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ও অর্থ যোগানদাতা ছিলেন কাদের খান। তার নির্দেশেই চারজন হত্যায় অংশ নেয়।

ডিআইজি বলেন, হত্যায় জড়িতদের মধ্যে যে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের আদালতে তাদের দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী অনুযায়ীই কাদের খানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

টানা ছয় দিন কার্যত গৃহবন্দী করে রাখার পর মঙ্গলবার বগুড়ার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় কাদের খানকে। পরে তাকে গাইবান্ধায় আনা হয়।

২০০৮ সালে জাতীয় পার্টির টিকিটে গাইবান্ধা-১ আসনে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন কাদের খান। কিন্তু ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে আসনটিতে এমপি নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে কাদের খান লিটনকে খুন করার পরিকল্পনা নেন বলে পুলিশের একটি সূত্র জানায়।

হত্যাকাণ্ডে তার সম্পৃক্ততার ব্যাপারে আরও জানতে আজ কাদের খানকে আদালতে হাজির করে পুলিশ ১০ দিনের রিমান্ড চাইলে বিচারক তা মঞ্জুর করেন।






মন্তব্য চালু নেই