মেইন ম্যেনু

যশোরের খবর (১৭/৭/১৪)

## যশোরে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে সাংবাদিক শামছুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
আবিদুর রেজা খান: যশোরে শহীদ সাংবাদিক শামছুর রহমানের ১৪তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি পালন করেছে। দিনটি উপরক্ষে প্রেসক্লাব যশোর মরহুমের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পন ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। প্রেসক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান তোতা ও সম্পাদক আহসান কবীরের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। একই কর্মসূচি পালন করে সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোর (জেইউজে), যশোর সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ফটো জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশন। গতকাল বুধবার সকালে শহরের কারবালা কবরস্থানে মরহুমের কবরে পুষ্পার্ঘ অর্পন করেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সময় সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন সভাপতি নূর ইসলাম, সহ-সভাপতি মোস্তফা রুহুল কুদ্দুস, সাধারণ সম্পাদক এম. আইউব, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুন্না, দপ্তর সম্পাদক তরিকুল ইসলাম তারেক, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এম আর খান মিলন, নির্বাহী সদস্য ওয়াহিদুজ্জামান মিলনসহ ইউনিয়নের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। পরে কবর জিয়ারত শেষে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন সভাপতি রিমন খান ও সাধারণ সম্পাদক সাকিরুল কবীর রিটনের নেতৃত্বে অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। এরপর বিকেলে যশোর সাংবাদিক ইউনিয়ন আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর আমিরুল আলম খান। সংগঠনের সভাপতি রিমন খানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি মিজানুর রহমান তোতা, সাবেক সভাপতি একরাম-উদ-দ্দৌলা, প্রয়াতের স্ত্রী সেলিনা আক্তার লাকী, ফখরে আলম প্রমুখ।

## ইসরাইলি হামলার প্রতিবাদে যশোরে আইনজীবীদের মানববন্ধন
যশোর অফিস: গাজায় ইসরাইলি বর্বরতার প্রতিবাদে বুধবার যশোরে পৃথক পৃথক মানববন্ধন হয়েছে। সকালে বারের মোড়ে আইনজীবী সমিতি এবং প্রেসক্লাবের সামনে এমএম কলেজের শিক্ষার্থীরা এই কর্মসূচি পালন করে।
আইনজীবী সমিতির মানববন্ধন চলাকালে বক্তৃতা করেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু মোর্তজা ছোট, সিনিয়র আইনজীবী নজরুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান, রুহুল কুদ্দুস খান, শামসুর রহমান, মাহমুদ হাসান বুলু, আবুল কায়েস প্রমুখ। তারা নিরপরাধ নারী-শিশুর ওপর বর্বরোচিত বোমা হামলার তীব্র নিন্দা করেন এবং অবিলম্বে এই হামলা বন্ধে বিশ্ববিবেককে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।
এদিকে, প্রায় একই সময়ে মুজিব সড়কে প্রেসক্লাবের সামনে সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজের শিক্ষার্থীরা একই দাবিতে মুখে কালো কাপড় বেঁধে মানববন্ধন করে। এই কর্মসূচিতে বক্তৃতা করেন জুয়েল হোসেন, রবিউল ইসলাম টিপু, সাদ্দাম হোসেন, রাহিদ পাপন, সাকিবুল ইসলাম চাকলাদার প্রমুখ। ছাত্ররা ইসরাইলি নৃশংস হামলার চিত্র তুলে ধরেন এবং জাতিসংঘের নির্বিকার অবস্থানের তীব্র সমালোচনা করেন।

## যশোরে ছাত্র রিয়াদ হত্যা মামলা রেকর্ড, বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ সড়ক অবোরধ ও থানা ঘেরাও
যশোর অফিস: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রিয়াদ হত্যা মামলায় জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুলসহ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা রেকর্ড করায় কোতোয়ালি থানার ওসি সহিদুল ইসলামকে ব্যাপক হুমকি-ধামকি দিয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতারা। এ ছাড়াও যশোর জেলা ছাত্রলীগ, এম এম কলেজ , সিটি কলেজ ছাত্রলীগ যৌথ ভাবে শহরের গুরুত্বপুর্ণ সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। মিছিলটি যশোর কোতয়ালি থানায় শেষ হয়। থানা চত্বরে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্টিত হয়। এ সময় বক্তব্যদেন যশোর সরকারী সিটি কলেজ শাখার সভাপতি ইকবল হোসেন।এ সময় তিন ঘন্টা সড়ক অবোরধ করে। ওই রাতে নেতারা ওসির রুমে বসেই মামলা প্রত্যাহারের চেষ্টা করে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মীর জহিরুল ইসলাম, আইন বিষয়ক সম্পাদক গাজী আব্দুল কাদের, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল খালেক, আসিফ উদ-দৌলা অলোক, শ্রমিক নেতা আজিজুল আলম মিন্টু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান বিপু প্রমুখ।
আফজাল হোসেন ওসিকে সরাসরি চার্জ করেন, কেন তিনি এই মামলায় ছাত্রলীগ সেক্রেটারির নাম অন্তর্ভুক্ত করেছেন। তিনি কি জানেন না বর্তমানে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এবং এই দলের শীর্ষনেতা। তিনি ওসিকে রাগতস্বর এবং চিৎকার করে বলেন, অনেক আন্দোলন সংগ্রাম করে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় এনেছি কি মামলা খেতে? আর আপনি মামলা নিয়েছেন তা কি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সেক্রেটারির কাছে শুনেছেন? ওসি সহিদুল ইসলাম ধীরস্বরে তাদের বোঝাতে চাইলেও উত্তেজিত নেতারা তার কথা কানে তোলেননি। তিনি বলেন, একটি হত্যামামলায় তার স্বজনরা মামলা দিলে পুলিশ তা গ্রহণ করবে। এক্ষেত্রে সুষ্ঠু তদন্তে জেলা ছাত্রলীগের সেক্রেটারির নাম না এলে তিনি চার্জশিটে অব্যাহতি দিতে পারেন মাত্র।
আওয়ামী লীগের উত্তেজিত নেতারা এ সময় সাংবাদিক ও পুলিশের যে সদস্য তাদের ভিডিও রেকর্ডিং করছিলেন তাদের বের করে দেন।
উল্লেখ্য, আফজাল হোসেনসহ উপস্থিত নেতারা সকলেই জেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি শাহীন চাকলাদারের অনুসারী। ঘটনার কিছুক্ষণ পর শাহীন চাকলাদার, দপ্তর সম্পাদক মীর জহিরুলকে ফোন করে জানান, তিনি এসপিকে বিষয়টি জানিয়েছেন। একইসাথে তাকে (মীর জহিরুল) থানায় উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে কর্মসূচি ঘোষণা করে ফিরে যাবার নির্দেশনা দেন। এরপর মীর জহিরুল ইসলাম বুধবার বিকেল চারটায় শহরের গাড়িখানাস্থ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেন। এ দিকে জেলা ছাত্রলীগের একটি অংশ বুধবার দুপুরে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শহরের বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

## যশোরে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থি নিহত, অস্ত্র উদ্ধার
যশোর অফিস: যশোর অভয়নগর উপজেলার শুভরাঢ়া গ্রামে চরমপন্থিদের দু’ গ্র“পের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ হয়। এ সময় সিরাজ আকুঞ্জি (৪০) নামে এক চরমপন্থি নিহত হয়েছে। সে ওই গ্রামের আফসার আকুঞ্জির ছেলে।
অভয়নগর থানার ওসি খবির উদ্দিন জানান, মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে শুভরাঢ়া গ্রামে দু’দল চরমপন্থির মধ্যে সংঘর্ষ চলছে। এরপর ফোর্স নিয়ে তিনি ঘটনাস্থলে যান। এ সময় চরমন্থিরা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ সেখান থেকে সিরাজ আকুঞ্জির লাশ উদ্ধার করে। এ সময় চরমপন্থিদের ফেলে যাওয়া একটি ওয়ান শুটার গান উদ্ধার করেছে। সিরাজ আকুঞ্জি বিপ্লবি কমিউনিস্ট পার্টির একজন সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে ৩টি হত্যাসহ ১২টি মামলা রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে তাকে পুলিশ আটক করার চেটা করে আসছে।

## যশোরে অডিটরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
যশোর অফিস: যশোরের সাবেক হিসাব রক্ষণ অডিটর ও ঢাকার ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অডিটর গোলাম রসুলের বিরুদ্ধে যশোর দুর্নীতি দমন আইনে মামলা হয়েছে।
দুর্নীতি দমন কমশিন (দুদক) যশোর সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুর রহমান বুধবার দুপুরে যশোর কোতোয়ালি থানায় এই মামলা করেন। মামলায় ১৫ লাখ ২৯ হাজার ৬৮০ টাকার অসঙ্গিতিপূর্ণ সম্পদের মালিকানা অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে।
অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, গোলাম রসুল যশোরে চাকরি করাকালে তার স্ত্রী আয়েশা খাতুনের সাথে যৌথভাবে ১০ দশমিক ১০ শতক জমি ক্রয় করেন। যার মধ্যে তার পরিমান ৫ দশমিক ৫ শতক। ওই জমিতে তারা যৌথভাবে তিনতলা একটি ভবন নির্মাণ করেন। কিন্তু গোলাম রসুল তার সম্পদ বিবরণীতে তিনতলা বাড়ি নির্মাণের কথা উল্লেখ করে ব্যায় দিখিয়েছেন ২৭ লাখ ৬১ হাজার ৩৭৫ টাকা। দুদক অনুসন্ধান করে ও গণপূর্ত বিভাগকে দিয়ে নিরক্ষণ করে ভবনের নির্মাণ খরচ ৬৪ লাখ ১৮ হাজার ৪৯৪ টাকা পায়। অর্ধেক হিসেবে গোলাম রসুলের সম্পদ বিবরণীতে ৩২ লাখ ৯ হাজার ২৪৭ টাকা দেখানোর কথা। এই হিসেবের মাধ্যমে তিনি ৪ লাখ ৪৭ হাজার ৮৭২ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপন করেছেন। যাহা দুদুক আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এছাড়া তিনি আয়কর নথিতে বাড়ি নির্মাণের ব্যয় ১৪ লাখ ১১ হাজার ৩৭৫ টাকাসহ সর্বমাট ২১ লাখ ৮৪ হাজার ৫০০ টাকা প্রদর্শন করেছেন। পক্ষেন্তরে দুদকে দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণী যাচাইকালে তার মোট ৩৭ লাখ ১৪ হাজার ১৮০ টাকা স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ পাওয়া গেছে। যার বিপরীতে তার কোন দেনা নেই। ফলে তিনি ১৫ লাখ ২৯ হাজার ৬৮০ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করে অপরাধ করেছেন। জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে

## যশোরে এসিআই ডিপোতে সন্দেহজনক ডাকাতি
যশোর অফিস: মঙ্গলবার গভীর রাতে ডাতকাতরা যশোর এসিআই ডিপোর গার্ডদের বেঁধে রেখে দরজা ভেঙ্গে নগদ ৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় ডিপো ম্যানেজান শফিকুর রহমান, হিসাবরক্ষক সমিরণ দাস ও দু নৈশ্য প্রহরীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে। তবে পুলিশ বলছে ঘটনা সন্দেহজনক।
এসিআই যশোর ডিপোর ব্যবস্থাপক শফিকুর রহমান জানান, যশোর শহরের ঘোপ সেন্ট্রাল রোডের কামরুজ্জামান মিন্টুর বাড়ির দোতলা ও তিনতলায় রয়েছে এসিআইয়ের ডিপো। রাত দুইটার দিকে ৭/৮ জন মুখোসধারী ডাকাত প্রথমে নিচতলা ওয়ালটনের শোরুমের গার্ড এবং পরে এসিআইয়ের দু’ গার্ড দুর্গাপদ ও ওহাব আলীর হাত-পা বেঁধে তাদের মুখে টেপ দিয়ে আটকে দেয় ডাতকাতরা। পরে ডাকাতরা এসিআইয়ের তিনতলার অফিস ভেঙ্গে ৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা নিয়ে সটকে পড়ে।
খবর পেয়ে যশোর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।যশোর কোতয়ালি থানার ওসি সহিদুল ইসলাম জানান, ডাকাতির ঘটনাটি রহস্যজনক মনে হচ্ছে। পুলিশের ধারণা, পরিকল্পিতভাবে আগেভাগেই কেউ এই ভোল্ট চাবি দিয়ে খুলে টাকা-পয়সা সরিয়ে ফেলেছে। বিষয়টি তদন্ত করলেই বিষয়টি পরিষ্কার হবে বলে তিনি দাবি করেন।






মন্তব্য চালু নেই