মেইন ম্যেনু

ভাঙ্গা হল এমপিপুত্রের দেয়াল, মুক্ত হল আ’লীগ নেতার পরিবার

খুলনার পাইকগাছায় স্থানীয় এমপি পুত্রের নির্মাণ করা সেই আলোচিত দেওয়াল ভেঙ্গে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার দুপুর ২টার দিকে এ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়। এর মধ্যদিয়ে দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্দি থাকা আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল আজিজের পরিবারের সদস্যরা মুক্ত হলেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের সূত্র জানায়, পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ফকরুল হাসানের নেতৃত্বে রোববার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত উপজেলার সরল গ্রামে অভিযানে যান।

এ সময় আদালতের নির্দেশে আলোচিত দেওয়ালের দু’টি স্থানে ৮ থেকে ১০ হাত করে ভেঙ্গে দেওয়া হয়। অভিযানকালে দাঙ্গা পুলিশসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। তবে ভাঙ্গার সময় দেওয়াল প্রদানকারীদের পক্ষে কয়েকজন আইনজীবী ভাঙ্গা প্রতিরোধের চেষ্টা করলেও তা কাজে আসেনি বলে সূত্র জানিয়েছে।

পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মারুফ আহমেদ দেওয়াল ভাঙ্গার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে দেওয়াল ভাঙ্গা হয়েছে বলে তিনি শুনেছেন। এর আগে দেওয়াল ভাঙ্গার বিষয়ে পুলিশ চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর থেকে থানায় চিঠি দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, খুলনা-৫ (পাইকগাছা-কয়রা) আসনের ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য শেখ মো. নুরুল হকের ছেলের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল আজিজের বাড়ির চারপাশে উঁচু দেওয়াল তৈরি করার অভিযোগ উঠে। ফলে বাড়িটিতে যাওয়া-আসার রাস্তা দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ ছিল। ফলে মই দিয়ে দেওয়াল টপকে কিংবা দেওয়ালের নিচ দিয়ে তৈরি করা গর্ত দিয়ে আসা-যাওয়া করতে হত বাড়ির বাসিন্দাদের। ফলে একপ্রকার বন্দিদশায় জীবন কাটে আবদুল আজিজসহ পরিবারের ৭ সদস্যের।






মন্তব্য চালু নেই